বালুরঘাটে করোনা জয়ীদের প্লাজমা সংগ্রহের প্রক্রিয়া শুরু হলো

0
812

365 দিন : কলকাতা সহ অন্যান্য জেলার পাশাপাশি এবার দক্ষিণ দিনাজপুরে করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করা হবে প্লাজমা থেরাপি। বৃহস্পতিবার বালুরঘাট ব্লাড ব্যাঙ্কে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা চিকিৎসক রমিত দে প্রথম করোনা আক্রান্তের চিকিৎসার জন্য প্লাজমা দান করলেন। প্রথম দিনেই আরও ৭ জন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মী প্লাজমা দিতে চেয়ে আবেদন জানিয়েছেন। আগামী দিনে অন্যান্যরাও প্লাজমা দিতে এগিয়ে আসবেন বলে আশা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, প্লাজমা দান করতে গেলেও বেশ কয়েকটি বিষয় দেখতে হয় চিকিৎসকদের। করোনা মুক্ত হওয়ার ২৮ দিন পর এক ব্যক্তি প্লাজমা দান করতে পারেন। বার বার তিনি দান করতে পারবেন না প্লাজমা। তার উপর বয়সকেও গুরুত্ব দেওয়া হয়। সাধারণভাবে ৫৫ বছর বয়সের কম ব্যক্তিদের কাছ থেকেই সংগ্রহ করা হয় প্লাজমা। তাই সুস্থ হয়ে যাওয়ার পরও ইচ্ছা থাকলে যে কোনও করোনাজয়ী প্লাজমা দিতে পারেন না। সমস্ত নিয়মকানুন মেনেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা আপাতত এই প্লাজমা দানে এগিয়ে আসতে আবেদন করেছেন। এবিষয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা স্বাস্থ্য মুখ্য আধিকারিক ডাঃ সুকুমার দে জানান, জেলায় প্লাজমা সংগ্রহ শুরু হয়েছে। করোনা যুদ্ধে যারা সুস্থ হয়েছেন তাদের মধ্যে এদিন একজন প্লাজমা দান করেন। আরো বেশ কিছু তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আগামীতে তাদের প্লাজমা নেওয়া হবে। এরপর, স্বাস্থ্যবিধি মেনে জেলায় করোনা রোগীদের প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হবে।

- Advertisement -
Advertisement