শুভেন্দু অধিকারীর দল ভাজপা
পূর্ব মেদিনীপুরে সাফ হয়ে যাবে,জয় শ্রীরাম স্লোগান মানবে না নন্দীগ্রাম

0

Last Updated on January 19, 2021 11:24 PM by Khabar365Din

নন্দীগ্রাম থেকে সৌগত মণ্ডল ছবি অমিত বন্দ্যোপাধ্যায়

- Advertisement -

নন্দীগ্রামের কৃষক আন্দোলনে সিপিএম হার্মাদদের হাত থেকে নিজেদের জমি রক্ষা করতে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করে শহীদ হয়েছিল শেখ সেলিম, বিশ্বজিৎ রবীনরা। পৌরাণিক যুগ থেকেই নন্দীগ্রামের মাটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সুরে বাঁধা। তাই মমতার নেতৃত্বে নন্দীগ্রামের আন্দোলনে হিন্দু মুসলমানের ধর্ম দেখে ভাগাভাগি হয়নি কখনো। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে নন্দীগ্রামের মাটিতে ভাজপা ঢোকার পর থেকেই মাথায় গেরুয়া ফেট্টি বেঁধে সিপিএমের সেই সমস্ত হার্মাদরাই বাইক মিছিল করে জয় শ্রীরাম ধ্বনি তুলে মুসলমান অধ্যুষিত নন্দীগ্রামে সাম্প্রদায়িকতার বীজ ছড়াতে শুরু করেছে। শুধুমাত্র নন্দীগ্রাম আন্দোলন নয়, নন্দিগ্রামের মাটি সাক্ষী রয়েছে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন এবং ঐতিহাসিক তেভাগা আন্দোলনের। ইতিহাস বলে স্বাধীনতা আন্দোলন এবং তেভাগা আন্দোলনের মাতৃভূমি হিসেবে পরিচিত নন্দীগ্রাম কোনদিন সাম্প্রদায়িক শক্তিকে এখানে মাথা তুলে দাঁড়াতে দেয়নি।
তাই মমতার প্রতিনিধি হিসাবে শুভেন্দু অধিকারীকে নন্দীগ্রামের মানুষ বুকে টেনে নিলেও রং বদল করার পরে তাকে আর মেনে নিতে প্রস্তুত নয় নন্দীগ্রামের সাধারণ মানুষ। শুভেন্দুর সঙ্গে বহু আন্দোলনের সাক্ষী নন্দীগ্রামের ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির নেতা আবু তাহের তাই বলেন, শুভেন্দু যতদিন দিদির প্রতিনিধি হিসেবে ছিল কোন সমস্যা ছিল না। এখনো সিপিএমের হার্মাদদের ফিরিয়ে নে এখানে হিন্দু-মুসলমান ভোটের হিসাব কষছে। তবে মনে রাখবেন শুভেন্দু অধিকারী তো কোন ছার, খোদ অমিত শাহ যদি নন্দীগ্রামে এসে ভোটে দাঁড়ায় তাহলেও জামানত জব্দ হবে।
ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির আরেক নেতা শেখ সুফিয়ান কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, শুভেন্দু অধিকারী হোক বা ভাজপা, পূর্ব মেদিনীপুরের একটা আসনেও ওরা জিততে পারবেনা।

Advertisement