১৪৪ ধারা জারি করে ড্রোন ক্যামেরায় তল্লাশি, জল ছিটিয়ে বাঘ ধরতে দমকল

0

Last Updated on December 28, 2021 12:19 AM by Khabar365Din

৩৬৫দিন। পাঁচদিন কেটে গেলেও এখনো খাঁচাবন্দি হয়নি কুলতলির বাঘ। এবার বাঘের অবস্থান জানতে ড্রোনের সাহায্য নিচ্ছে বনদপ্তর। বনদফতরের দাবি, বাঘ যে ডোঙ্গাজোড়া গ্রাম লাগোয়া জঙ্গলে রয়েছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত তারা ক্রমশ চেষ্টা করা হচ্ছে বাঘের গতি বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করা অর্থাৎ একটা নির্দিষ্ট গণ্ডির মধ্যে বাঘের গতিবিধি সীমাবদ্ধ করে ফেলা ইতিমধ্যেই দুটি বাঘ ধরার জন্য খাঁচা প্রস্তুত রাখা হয়েছে এবং সেগুলি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে জঙ্গলের নির্দিষ্ট জায়গায় বসিয়ে রাখা হয়েছে পাশাপাশি গাছের ওপর মাচা বেঁধে সেখানে প্রস্তুত রয়েছেন বনদপ্তর এর শিকারিরা। বাঘ দেখা গেলেই তারা ঘুমপাড়ানি গুলি ছুড়ে বাঘ কাবু করার চেষ্টা করবেন।

- Advertisement -

ব্লু দপ্তরের বিশেষজ্ঞ কর্মীরা জঙ্গল জুড়ে পটকা ফাটিয়ে বাঘ তাড়িয়ে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় আনার চেষ্টা করছেন। বনদপ্তর মনে করছে অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই কাবু করা যাবে রয়‍্যালবেঙ্গল কে। তবে বনদপ্তর কে চিন্তায় রাখছে মূলত দু’টি বিষয় প্রথম হল অত্যুৎসাহী গ্রামবাসীরা মাঝেমধ্যেই লাঠি নিয়ে জঙ্গলে ঢুকে পড়ছে তাদের নিরস্ত্র করে বুঝিয়ে বারবার ঘরে পাঠাতে হচ্ছে ইতিমধ্যেই প্রশাসনের তরফে একটি নির্দিষ্ট এলাকায় ১৪৪ ধারা পর্যন্ত জারি করতে হয়েছে দ্বিতীয় বিষয় হলো বাঘটি ক্ষুধার্ত রয়েছে। পাঁচ দিন ধরে কার্যত সে কিছুই খাবার পাইনি কারন যে জঙ্গলে বাকি রয়েছে সেখানে যথেষ্ট পরিমাণ খাবার নেই ফলে বাঘটি শারীরিক দিক থেকে দুর্বল হয়ে পড়তে পারে বলে মনে করছেন বনদপ্তর আধিকারিকরা ফলে বাঘটিকে গুলি করে কাবু করার ক্ষেত্রে যথেষ্ট সর্তকতা নিতে হচ্ছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here