বিস্ফোরক অডিও ক্লিপ ফাঁস, পুরভোটে ভাজপা প্রার্থী টিকিট বেচছে ১ লক্ষ টাকায়

0

Last Updated on November 14, 2021 7:54 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন।

- Advertisement -

বাংলার রাজনীতিতে ফের স্টিং অপারেশন। বিধানসভা নির্বাচনে জেতার জন্য ভাজপা হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করেছে বলে অভিযোগ ওঠার পরে এবার আসন্ন পুর নির্বাচনে ভাজপা দলের টিকিট দেওয়ার জন্য প্রার্থী পিছু ১ লক্ষ টাকা করে দাবি করছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের। নিজেদের দাবির সপক্ষে ২ ভাজপা নেতার মধ্যে কথোপকথন এর একটি বিস্ফোরক ভিডিও প্রকাশ করেছে তৃণমূল। কিছুক্ষণ আগেই তৃণমূলের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে এই ভিডিও প্রকাশ করা হয়।


সেই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ কলে প্রীতম বিজেপির রক্তিম নামে সেভ করা এক ব্যক্তির সঙ্গে অন্য আরেক ভাজপা নেতার কথোপকথন। যেখানে প্রথম ব্যক্তি দাবি করেছেন তিনি শুভেন্দু অধিকারীর জগদ্ধাত্রী পুজো থেকে ফিরে আসার পরেই যাচ্ছেন ভাজপা রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এর সঙ্গে বৈঠক করতে। যেখানে ভাটপাড়া আরেক বিধায়ক শঙ্কর ঘোষের উপস্থিত থাকার কথা। 12 টি আসনে ভাজপা টিকিট দেওয়ার জন্য এক লক্ষ টাকা করে দাবি করা হয়েছে এই কথোপকথনে। শুধু তাই নয় বক্তা স্পষ্ট জানিয়েছেন এই টাকার কমে টিকিটের রফা করতে হলে তার জন্য প্রয়োজন রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এর অনুমোদন। নিজেকে একাধারে শুভেন্দু অধিকারী এবং রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এর ঘনিষ্ঠ বলে দাবী করা এই ভাজপা নেতার পরিচয় তৃণমূলের তরফে এখনো প্রকাশ্যে আনা না হলেও এই ভিডিও মিথ্যে বলেও দাবি করেনি ভাজপা নেতৃত্ব। প্রাথমিকভাবে শিলিগুড়ি পুরসভার টিকিট বিলি নিয়ে এই কথোপকথন বলে মনে করা হচ্ছে। আলোচনাতে রয়েছে কলকাতা পুরসভার টিকিট বন্টন।


প্রসঙ্গত, ভাজপা বাংলায় টিকিট বিলিভ বিপুল অঙ্কের টাকার লেনদেনের পাশাপাশি নারীদেহ টোপ হিসেবে বহুবার ব্যবহার করেছে বলে কয়েকদিন আগেই প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছিলেন মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপাল তথা বাংলার প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথাগত রায়। বাংলায় ভোটে জেতার পাশাপাশি টাকার বিনিময় দলের টিকিট বিক্রির অভিযোগ প্রসঙ্গে তৃণমূলের পক্ষে প্রাক্তন মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসুর অভিযোগ, ক্ষমতার দাপট ও বস্তা বস্তা টাকা ছড়িয়ে যে ক্ষমতায় আসা যায় না, তার জন্য যে রাজনৈতিক ভাবনা চিন্তা লাগে – একথা বিজেপি বাংলায় বড় ধাক্কা খেয়েও বুঝতে পারেনি। বাংলার মন বুঝতে না পেরে তাঁরা ক্ষমতা থেকে অনেক দূরে। এই শিক্ষাটা আমাদেরও মনে রাখতে হবে। ক্ষমতার দম্ভই ওদের পতনের কারণ।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here