স্পুটনিক-৫ পরীক্ষায় দেশবাসীকে যোগদানের আহ্বান জানালেন মস্কোর মেয়র

0

Last Updated on August 31, 2020 12:19 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন ।সূত্র বিবিসি করোনা প্রতিষেধক স্পুটনিক-৫ পরীক্ষায় দেশবাসীকে যোগদানের আহ্বান জানালেন মস্কোর মেয়র সার্গেই সোবিয়ানিন। তিনি জানিয়েছেন, এই প্রতিষেধকের উপরে আরও বিস্তৃত পরীক্ষা শীঘ্রই শুরু হবে। কিন্তু কিছুদিন আগেই প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করে দিয়েছেন শীঘ্রই বাজারে আসছে বিশ্বের প্রথম কোভিড ভ্যাকসিন স্পুটনিক ৫। তারপর মেয়র কেন পরীক্ষা করার কথা বলছেন? তাহলে কি সব রকম ট্রায়াল ছাড়াই তড়িঘড়ি বাজারে ছাড়া হচ্ছে ভ্যাকসিন? তাহলে এর সুরক্ষা কতটা? ইতিমধ্যেই উঠতে শুরু হয়েছে প্রশ্ন । মস্কোর মেয়র বলেছেন, ওই গবেষণা ছ’মাস ধরে চলবে। ৪০ হাজার মানুষ এর সঙ্গে যুক্ত থাকবেন। যাঁরা এই গবেষণায় অংশ নিতে চান বা স্বেচ্ছাসেবক হতে ইচ্ছুক তাঁরা নাম নথিবদ্ধ করতে পারেন। রাশিয়া বিশ্বে প্রথম করোনা টিকা আবিষ্কার করায় দেশবাসীর গর্বিত হওয়া উচিত বলে মনে করেন মস্কোর মেয়র। তিনি জানিয়েছেন, মানবদেহে প্রতিষেধক প্রয়োগের চূড়ান্ত পর্যায় শুরু হতে চলেছে। তাঁর কথায়, ‘‘কবে প্রতিষেধক আবিষ্কার হবে আমরা সে দিকে অধীর আগ্রহে তাকিয়ে ছিলাম। এবং আমরা সেটি করতে পেরেছি। এখন এই টিকা মানবদেহে পরীক্ষামূলক ভাবে প্রয়োগ করা হবে। করোনা প্রতিষেধক তৈরিতে অংশ নেওয়ার বড় সুযোগ মস্কোবাসীর সামনে এসেছে। সেই সুযোগ কাজে লাগানো উচিত।’’  গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়ে গত ১১ অগাস্ট রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন প্রথম করোনা প্রতিষেধক আবিষ্কার কথা জানিয়েছিলেন। পরে জানা যায়, ওই প্রতিষেধকের গবেষণার সময় বেশ কিছু আন্তর্জাতিক নিয়ম মানা হয়নি। ফলে বিশেষজ্ঞদের একাংশ, রাশিয়ার তৈরি প্রতিষেধকের কার্যকরিতা নিয়ে রীতিমতো সন্দিহান। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)-এর বিজ্ঞানীরা গত সপ্তাহে জানিয়েছিলেন, রাশিয়ার সঙ্গে টিকা নিয়ে তাঁরা আলোচনা শুরু করেছেন। কিন্তু এখনও তাঁরা এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পাননি। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের একটা বড় অংশ মনে করেছেন, রাশিয়ার তৈরি করোনা প্রতিষেধক আবিষ্কারে যেহেতু সব কটি পর্যায় ঠিক মতো মানা হয়নি, তাই রুশ টিকাটি কতটা নিরাপদ ও কার্যকর তা নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here