দলে দলে, দলে ফেরার গান। একদিনে বাম রাম থেকে তৃণমূলে যোগ দিলেন ৬৫০০

0
1002

৩৬৫ দিন। বামরাম জোট ছেড়ে দলে দলে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছেন কর্মী-সমর্থকরা। টাকার লোভে, ক্ষমতার লোভে এবং খানিকটা হতাশায় যারা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তারাই বিজেপিতে গিয়ে চূড়ান্ত হতাশাগ্রস্ত হয়ে তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন। সিপিএম ছেড়েও অসংখ্য কর্মী ও সমর্থকরা তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নামে যে আইওয়াশ করছে বিজেপি,সিপিএম ও কংগ্রেস তার প্রতি বীতশ্রদ্ধ হয়েই তৃণমূলে যোগ দিয়ে যথার্থ সম্মান পাচ্ছেন অসংখ্য কর্মী ও সমর্থকরা। এর জন্যই শুধু রবিবারই বামরাম জোট ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন প্রায় ৬৫০০ কর্মী। এদিনই হাওড়া, পুরুলিয়া, দুই মেদিনীপুর, মালদা, দক্ষিণ দিনাজপুর, গোপীবল্লভপুর, মালদা মিলিয়ে প্রায় সাড়ে ৬ হাজার কর্মী সমর্থক এদিন বিজেপি সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। রবিবার দক্ষিণবঙ্গের হাওড়া, পুরুলিয়া, মেদিনীপুর এবং উত্তরের মালদা, বালুরঘাটে ২৫০০ বিজেপি সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন অন্তত এক হাজার কর্মী সমর্থক। বিজেপি সিপিএম এর পাশাপাশি মালদায় কংগ্রেস শিবিরেও ভাঙন ধরেছে। এদিন হাওড়ায় তৃণমূলের সদর কার্যালয়ের সামনে বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দেওয়া মহিলা কর্মীবৃন্দ ও সমর্থকদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তৃণমূলের জেলা সদর চেয়ারম্যান মন্ত্রী অরূপ রায়। উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের অনেকেই। এরা পুরসভার ২০ নং ওয়ার্ডের টিকিয়াপাড়া অঞ্চলের বাসিন্দা। গত নির্বাচনে ওই ওয়ার্ডে বিজেপির প্রার্থী ছিলেন যিনি সেই তারা বেগমের নেতৃত্বে এদিন মহিলা কর্মী ও সমর্থকেরা তৃণমূলে যোগদান করেন। উলুবেড়িয়া দক্ষিণ বিধানসভার নবগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার
তিন শতাধিক বিজেপি কর্মী এদিন তৃণমূলে যোগদান করেন।উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক পুলক রায়।
অন্যদিকে, এদিন বিকেলে রতুয়া ২ ব্লকের শ্রীপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের মাগুরা এলাকায় এক যোগদান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি তথা সাংসদ মৌসুম নূর, মালতিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের কোডিনেটর তথা প্রাক্তন বিধায়ক রহিম বক্সী, তৃণমূলের জেলা সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস সহ অন্যান্য নেতারা। সেখানে বিজেপি সিপিএম কংগ্রেস থেকে ৫০০ জনেরও বেশি কর্মী সমর্থক তৃণমূলে যোগ দেন। দল ত্যাগী নেতাকর্মীদের অভিযোগ, দলে সামান্যতম মর্যাদাও পাননি। কাজ করার কোনো সুযোগ নেই। দলে দুর্নীতি বাসা বেধেছে তাই তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে তারা তৃণমূলে যোগদান করেছেন। পাশাপাশি কংগ্রেস এবং বিজেপির দলীয় কোন্দল এবং ওদের দলের আশ্রিত মাতব্বরদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এখন তৃণমূলে অসংখ্য কর্মী-সমর্থক, নেতারা যোগদান করছেন। এদিন মাগুরা এলাকায় প্রায় ৫০০ নেতাকর্মী ও সমর্থকরা বিজেপি এবং কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। তাদের হাতে দলীয় ঝান্ডা তুলে দেওয়া হয়েছে । আগামীতে দলের এই এলাকার সাংগঠনিক  বৃদ্ধি হলো। ২১ জুলাই তৃণমূলের ভার্চুয়াল শহিদ দিবস থেকে দলত্যাগী নেতা-কর্মী সহ দলের পুরানো কর্মীদের ফিরে আসার বার্তা দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল নেত্রীর সেই ডাকের পর ভাঙড় জুড়ে চা চক্রের মধ্য দিয়ে দলের পুরানো কর্মীদের ফুল মিষ্টি উত্তরীয় দেওয়া হয়। অন্যদিকে, জঙ্গলমহলেও বিজেপির ভাঙ্গন অব্যাহত রয়েছে । রবিবার সন্ধ্যায় ঝাড়গ্রাম জেলার গোপীবল্লভপুরএক ব্লকের তিন নম্বর গ্রাম শাসড়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ৪০০ জন বিজেপির নেতা কর্মী ও সমর্থক আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। এদিন সন্ধ্যায় এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া সকলের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেন তৃণমূল কংগ্রেসের ঝাড়গ্রাম জেলা সভাপতি বিধায়ক দুলাল মুর্মু, এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক শীর্ষ নেতৃত্ব। রবিবার বিকেলে পুরুলিয়ার আড়শা ব্লকের চাটুহাঁসা গ্রাম পঞ্চায়েতের হেরোডি গ্রামে একটি অনু্ষ্ঠান হয়। সেই অনুষ্ঠানেই বিজেপি, সিপিএম, কংগ্রেস থেকে 325 জন কর্মী স্মর্থক তৃণমূলে যোগদান করে। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন পুরুলিয়া জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা গুরুপদ টুডু,। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিভাগের মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো সহ একাধিক বিশিষ্ট নেতৃত্ব। অন্যদিকে, রবিবার বিকেলে বালুরঘাট ব্লকের বোয়ালদাড় গ্রাম পঞ্চায়েতের ভেরেন্ডা এলাকায়া একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বাম ও বিজেপি ছেড়ে প্রায় ১০০ টি পরিবার তৃণমূলে যোগদান করেছে। এদিন একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সদ্য তৃণমূলে যোগদানকারীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন জেলা সভাপতি গৌতম দাস। এছাড়াও এদিনের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা, তৃণমূল নেতা অরূপ কুমার সরকার সরকার সহ অন্যান্য নেতৃত্বরা। বিজেপিতে যোগ দিয়ে চূড়ান্ত হতাশার মধ্যে থাকতে হয়েছে অসংখ্য কর্মী-সমর্থকদের। এই অবস্থায় তৃণমূলে যোগ দিয়ে নিজের অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছেন তারা।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here