সিঙ্গুরে মুখ্যমন্ত্রী টেলিফোন বার্তায় বললেন, বিজেপির ফড়েদের জন্যই আলু পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি

1
922

৩৬৫দিন। লাগামছাড়া আলু পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকেই এবার সরাসরি দায়ী করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, বিজেপি ফড়েদের নিয়ন্ত্রণ করছে। চাষিদের থেকে আলু-পেঁয়াজ কম দামে কিনে বিদেশে পাঠিয়ে দিচ্ছে। তাতেই আলু, পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। এর জন্য দায়ী কেন্দ্রীয় সরকার। আলু পেঁয়াজকে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে কেন্দ্র। ফলে আলুর দাম নিয়ন্ত্রণে থাকছে না। সবই যদি বাংলায় তৈরি হয়ে বাইরে চলে যায়, তবে দেশের লোকেরা খাবে কী? বড় কেলেঙ্কারি করছে কেন্দ্র। আমরা এর প্রতিবাদ করছি। বুধবার সারা রাজ্যজুড়ে কেন্দ্রের কৃষক বিরোধী নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে পশ্চিমবঙ্গ কিষাণ খেতমজদুর তৃণমূল। সিঙ্গুরে ওই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে মুখ্যমন্ত্রী নিজে উপস্থিত হতে না পারলেও এদিন টেলিফোন বার্তায় সরাসরি কেন্দ্রকে দায়ী করেছেন।

- Advertisement -

সিঙ্গুরে অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক
শুধু কৃষি নয়, শিল্পের মধ্য দিয়েও সিঙ্গুরের মানুষকে কর্মসংস্থানের দিশা দেখাতে চলেছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, আমি মনে করি সিঙ্গুরে একদিকে কৃষি, আরেক দিকে এক্সপ্রেসওয়ের ধার ধরে শিল্প তৈরি হোক। তাতে এই এলাকাটা আরও উন্নত হবে। সিঙ্গুর এমনিতেই উন্নত এলাকা। সিঙ্গুরে অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক তৈরি করা হচ্ছে। ওখানে রাজ্য সরকারের ১০.৭৬ একর জায়গা রয়েছে। সেখানেই অ্যাগ্রো প্রসেসিং পার্ক হবে।যারা কৃষিজাত পণ্য নিয়ে শিল্প করতে চায় তাদের জায়গা দেওয়া হবে। বহু মনুষের চাকরিও হবে। এছাড়া তিন হাজার মেট্রিক টনের একটি কোল্ডস্টোরেজও ওখানে তৈরি করা হচ্ছে।

বিজেপির ফাঁদে পা না রাখতে সতর্ক
মুখ্যমন্ত্রী এদিন কেন্দ্রের পাশাপাশি বিজেপিকেও তীব্র আক্রমণ শানিয়ে মানুষকে সতর্ক করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন,আঙুর ফল টক। বিজেপি আঙুর ফলের কথা বলবে। ওদের ফাঁদে পা দেবেন না। সবচেয়ে বড় চোর, ডাকাত তারাই জ্ঞান দিচ্ছে। লড়লে আমরাই লড়ব। মরলে আমরাই মরব। জীবনদান করতে হলে তাও আমরাই করব। ছোটখাটো ভুলত্রুটি এলাকায় কেউ করলেও তা সংশোধন করতে হবে। যে কোনও মানুষমাত্রেই ভুল হয়। সেটাকে সংশোধন করে নিতে হবে।

Advertisement

1 COMMENT

  1. বিজেপি শাসিত রাজ্যে বাঙালী বিরোধী বিজেপির এবার কোভিডের বাহানায় বাঙালি সংস্কৃতির উপর আঘাত। এই “হিন্দু প্রেমী” সাম্প্রদায়িক ভন্ডরা বাংলায় দুর্গাপুজো বন্ধের ফেক খবর করে নোংরা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here