সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখানো মোদির নিজের রাজ্য গুজরাটে প্রতিবছর দারিদ্র্যের জন্য আত্মহত্যায় বাধ্য হন প্রায় ৮০০

0

Last Updated on September 5, 2020 4:21 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন: ক্ষুধাতুর শিশু চায় না স্বরাজ, চায় দুটো ভাত একটু নুন। সোনায় মোড়া রাজ্য নয়, রাজ্যের মানুষ চায় দুবেলা-দুমুঠো পেট ভরে খাবার। বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর আমলে 2 টাকা কেজি চাল এবং এখন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে রেশনের চাল গম পেয়ে চরম দারিদ্র্য ভুলেছে বাংলার মানুষ। কিন্তু দেশের অন্যত্র ছবিটা এরকম নয়।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বারেবারে 2021 বাংলা বিধানসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ক্ষমতায় এলে সোনার বাংলা গড়ে দেবেন। যদিও বাংলায় ক্ষমতায় এলে তাঁরা কি করবেন, তার হাতে-কলমে প্রমাণ গুজরাট মডেল। গত প্রায় তিন দশক ধরে গুজরাতে ক্ষমতায় থাকার পরেও বিজেপি শাসনে গুজরাতে প্রায় প্রতিদিন দারিদ্র্য এবং বেকারত্বের জ্বালায় আত্মহত্যায় বাধ্য হচ্ছেন ২ জন। গতকালে গুজরাতের দাহোড় এলাকায় নিজের তিন কন্যা সন্তান এবং স্ত্রীকে নিয়ে সপরিবারে আত্মঘাতী হন সইফি সাব্বিরভাই দুধিয়াওয়ালা নামে এক ব্যক্তি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আত্মনির্ভর ভারতের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনিও সংসার চালানোর জন্য ডিসপোজেবল থালা এবং বাটি তৈরীর কাজ করতেন। তার পরেও বিপুল ঋণের ভারে জর্জরিত হয়ে বাধ্য হয়েছেন সপরিবারে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে।
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তত্ত্বাবধানে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরো অথবা এনসিআরবি’র ক্রাইম ইন ইন্ডিয়া তথ্য বলছে প্রতিবছর শুধুমাত্র গুজরাতেই চরম দারিদ্র্য এবং বেকারত্বের জন্য আত্মহত্যায় বাধ্য হন প্রায় 800 জন। মূলত দৈনন্দিন সংসার চালাতে না পেরে এবং দুবেলা-দুমুঠো পেটের ভাত জোগাড় করতে অক্ষম হয়েই তারা এই পথ বেছে নিচ্ছেন।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here