ট্রাম্পের আছে এয়ারফোর্স ওয়ান, মোদি’র এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান

0

Last Updated on October 1, 2020 5:03 PM by Khabar365Din

দাম কয়েক হাজার কোটি টাকা

- Advertisement -

৩৬৫ দিন: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস থেকে রওনা হল এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ এবং লকডাউন এর জেরে গত মাস ছয়েক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিদেশ সফরে ভাটা পড়লেও, কার্যত অধিকাংশ সময়ই কাকে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ঘুরে বেড়াতে হয়। তার উপরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলে কথা। মার্কিন রাষ্ট্রপতি যদি পারেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী কেন পারবেন না! তাই মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প যে অত্যাধুনিক এয়ারফোর্স ওয়ান বিমানে চড়ে গোটা পৃথিবী ঘুরে বেড়ান, ঠিক তেমন অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান এ চড়ে এবার থেকে বিদেশ সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি। যদিও জানা গিয়েছে মার্কিন রাষ্ট্রপতি এয়ার ফোর্স ওয়ান এর থেকেও বহুগুণে উন্নত হবে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। ৬০ হাজার কোটি টাকার ঋণ শোধ করতে না পেরে যেখানে এয়ার ইন্ডিয়াকে বেসরকারি হাতে বেঁচে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার, সেই অবস্থায় বেশ কয়েক হাজার কোটি টাকা দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের কাছ থেকে অত্যাধুনিক প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত গ্যাজেটস লাগানো হয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান এ। যদিও ঠিক কত টাকা খরচ হয়েছে এই বিমান কিনতে তা কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এখনো সরকারি ভাবে জানানো হয়নি।
অন্যদিকে, নয়া বিমানদুটি একেবারে অত্যাধুনিক হবে। বিমানের যে সুরক্ষা সিস্টেম থাকবে, তা শত্রুপক্ষের রেডার ফ্রিকোয়েন্সি আটকে দেবে এবং হিট-সিকিং ক্ষেপণাস্ত্রের দিকনির্ণয়ের প্রযুক্তি নষ্ট করে দিয়ে অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতে পারবে। এছাড়া বিমানদুটি রীতিমতো বিলাসবহুল হবে। কাজকর্মের জন্য বিশাল জায়গা থাকবে। বৈঠকের জন্য ঘর, বিভিন্ন কমিউনিকেশন সিস্টেমের পাশাপাশি স্বাস্থ্যজনিত জরুরি অবস্থা সামলানোর জন্য থাকবে একটি আলাদা অংশ। শুধু তাই নয়, তেল ভরার জন্য কোথাও না দাঁড়িয়েই ভারত থেকে আমেরিকা সরাসরি উড়ে যেতে পারবে বিমানদুটি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং উপ-রাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডুর সফরের জন্য ব্যবহৃত হবে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির নয়া বিমানে থাকবে সেল্ফ প্রোটেকশন স্যুট বা এসপিএস। থাকবে এয়ারক্র্যাফ্ট ইনফ্রারেড কাউন্টার-মেজার সিস্টেম, অ্যাডভান্সড ইন্টিগ্রেটেড ডিফেন্সিভ ইলেকট্রনিক ওয়ারেফেয়ার এবং ক্ষেপণাস্ত্র হানা রুখতে বিশেষে কাউন্টার-মেজার ডিসপেন্সিং সিস্টেম। ভিভিআইপিদের সফরে ব্যবহারের জন্য উন্নত করে তুলতে দুটি নতুন বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর বিমানকে বোয়িংয়ের ডালাসের শাখায় পাঠিয়েছিল ভারত। বিমানদুটিতে মিসাইল ডিফেন্স প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য বোয়িংয়ের ১৯০ মিলিয়ন ডলারের চুক্তিও হয়েছিল।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here