মেলার মাঠ ঘেরার প্রতিবাদ – ৪ সদস্যের হাইপাওয়ার কমিটি থেকে রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত’র পদত্যাগ

0

Last Updated on September 29, 2020 8:56 PM by Khabar365Din

‘প্রধান বিচারপতি সাফ জানালেন – ঘেরার কাজ চলবে, প্রয়োজনে রাজ্যের সব পুলিশ পাহারা দেবে’

- Advertisement -

৩৬৫ দিন: বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ পৌষ মেলার মাঠ ইটের নিচু পাঁচিল এবং কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে ঘেরার যে কাজ শুরু করেছে তা চলবে। মেলার মাঠ ঘেরার যে কাজ চলছে তাকে কোন শক্তি আটকাতে পারবেনা। প্রয়োজনে রাজ্যের তরফে বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করেও কাজ চালাতে হবে। এই বিষয় হাইকোর্ট নিযুক্ত ৪ সদস্যের হাই পাওয়ার কমিটি বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর সঙ্গে বৈঠকের পরে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাতে কোনো স্থগিতাদেশ দেওয়া হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণণ। গুরুদেব রবীন্দ্রনাথের আদর্শ লংঘন করে বিশ্বভারতী এবং মেলার মাঠ ঘেরার বিষয়ে রাজ্য সরকারের সায় নেই জানিয়ে প্রধান বিচারপতি নিযুক্ত ৪ সদস্যের হাই পাওয়ার কমিটি থেকে পদত্যাগ করলেন রাজ্যের প্রতিনিধি হিসেবে কমিটিতে থাকা অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত।
প্রসঙ্গত সুপ্রিম কোর্টের রায় অমান্য করে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ মেলার মাঠ ঘিরে ফেলা শুরু করার পরেই আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে জনস্বার্থের মামলা দায়ের করে অবিলম্বে পাঁচিল অথবা যেকোনো ভাবে মেলার মাঠ ঘেরা বন্ধ করার জন্য আবেদন করেন। একই আবেদন জানিয়ে আরো একটি জনস্বার্থের মামলার জন্য কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করেছেন মাহফুজা খাতুন।
আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকারের দায়ের করা জনস্বার্থের মামলার প্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে বিশ্বভারতীর পাঁচিল সমস্যা মেটানোর জন্য ৪ সদস্যের হাইকোর্ট নিযুক্ত হাই পাওয়ার কমিটি গঠন করে। এই কমিটিতে দুই বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি রাখা হয়েছিল রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট সলিসিটর জেনারেল ওয়াই জে দস্তুরকে। কিন্তু স্থানীয় বাসিন্দা, ব্যবসায়ী সমিতি, বিশ্বভারতীর আশ্রমিক এবং বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের ভূমি রাজস্ব দপ্তরের আধিকারিকদের নিয়ে সর্বসম্মতিক্রমে একটি সমাধান সূত্র আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল এই হাই পাওয়ার কমিটিকে। কিন্তু বাস্তবিক এই কমিটি স্থানীয় বাসিন্দা এবং ব্যবসায়ী সমিতি ও রাজ্য সরকারের কোন বক্তব্যে কর্ণপাত না করে একতরফাভাবে বিশ্বভারতীর উপাচার্য তথা কর্তৃপক্ষের কথায় সায় দিয়ে কম উচ্চতার ইটের পাঁচিলের উপরে কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে মেলার মাঠ ঘিরে ফেলার যে নির্দেশ দিয়েছে, তাতে রাজ্য সরকারের সম্মতি না থাকায় আজ কমিটি থেকে পদত্যাগ করেন অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here