কার নির্দেশে, রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা নিয়ে কথা বলতে বারবার অসুস্থ বুদ্ধ’র কাছে ছুটে যাচ্ছেন পদ্মপাল

0
2727

৩৬৫ দিন: বাংলার ভোট যত এগিয়ে আসছে ততই বাম রাম জোটের সলতে পাকাতে বেশি করে আসরে নামছেন পদ্মপাল। অষ্টমীর বিকেলে সস্ত্রীক বুদ্ধবাবুর ফ্ল্যাটে অযাচিত অতিথির মতো হাজির হলেন বাংলার পদ্মপাল। এবারেই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ফ্ল্যাটে অযাচিত আতিথ্য গ্রহণ করেছেন ধনকড়। আজকেও প্রায় আধঘন্টা বুদ্ধবাবুর ফ্ল্যাটে কাটানোর পরে বেরিয়ে এসে পদ্মপালের দাবি, বুদ্ধবাবু একজন জীবন্ত স্টেটসম্যান। ওঁর আরোগ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি। বুদ্ধবাবু ভাল আছেন। তবে তাঁর শ্বাসের সমস্যা রয়েছে। তাঁকে অক্সিজেন নিতে হয়। ওঁর চোখেও কিছু সমস্যা রয়েছে। পদ্মপাল বলেন, রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে আমি বুদ্ধবাবুর সঙ্গে আলোচনা করেছি। ওঁর দীর্ঘ অভিজ্ঞতা রয়েছে। উনি প্রকৃত পরিণত ব্যক্তি। পশ্চিমবঙ্গে উনি একজন জীবন্ত সজ্জন।
আসলে বাংলায় পদ্মপাল হয়ে তাঁর আসার পর থেকেই যেভাবে বকলমে বিজেপির রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব পালন করে চলেছেন, তারই অঙ্গ হিসেবে 2021 রাজ্য বিধানসভার নির্বাচনের আগে বাংলায় বামেদের সঙ্গে বিজেপির বোঝাপড়াটা আরও পাকাপাকিভাবে গড়ে তুলতে বারে বারে দৌড়চ্ছেন অসুস্থ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ফ্ল্যাটে। বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় জেরে গত বেশ কয়েক বছর ধরে কার্যত লোকচক্ষুর অন্তরালে চলে গিয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। দলের কোনো কর্মসূচিতেও দীর্ঘদিন তিনি অংশ নেন না। তার পরেও জোর করে তার বাড়িতে ছুটে গিয়ে বাংলার সিপিএম কর্মীদের মধ্যে গিমিক তৈরীর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পদ্মপাল। বারে বারে অসুস্থ বুদ্ধবাবুর সঙ্গে বাংলার বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে দাবি করে আদতে সিপিএম কর্মীদের কাছে বার্তা দিতে চাইছেন তিনি তথা তাঁর দল বিজেপিই বাংলায় বামেদের প্রকৃত শুভাকাঙ্ক্ষী। যদিও বুদ্ধবাবুর ঘনিষ্ঠ বামে রাজনৈতিক মহলের কাছে পদ্মপালের এই রাজনৈতিক আলোচনার বিষয়টি খুব একটা বিশ্বাসযোগ্য লাগছে না।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here