ঠাকরে সরকার ভাঙতে এবার আসলে পদ্মপাল

0

Last Updated on June 28, 2022 4:33 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

মহারাষ্ট্রের পদ্মপাল বাংলার মতোই প্রো-অ্যাকটিভ, এর আগে মধ্যরাতে বেআইনি ভাজপা সরকার গড়েছিলেন

৩৬৫ দিন। মুম্বই। বাংলা হোক বা মহারাষ্ট্র। কেন্দ্রে ভাজপা শাসিত মোদি সরকারের আমলে প্রত্যেকটি ভাজপা বিরোধী দল শাসিত রাজ্যে ভাজপা নিয়ন্ত্রিত পদ্মপালদের ভূমিকা একই রকম। তা আবার প্রমাণ করে দিতে মাঠে নামলেন মহারাষ্ট্রের পদ্মপাল।
মহারাষ্ট্রে উদ্ধব ঠাকরে নেতৃত্বে এনসিপি শিবসেনা এবং কংগ্রেসের জোট সরকার ফেলার জন্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েও সুবিধে করতে পারেনি বিদ্রোহী শিবসেনা শিবির। আগামী ১১ জুলাই পর্যন্ত মহারাষ্ট্র বিধানসভার সংকটের বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টের প্রত্যক্ষ নজরদারিতে থাকবে বলে গতকাল জানিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ সাংবিধানিক বেঞ্চ।

এই পরিস্থিতিতে উদ্ধবের সরকার ফেলার জন্য শিবসেনা বিধায়কদের বিদ্রোহী করে তোলার পাশাপাশি তাদেরকে প্রথমে গুজরত এবং পরে অসমের বিলাসবহুল রাখার যে বিপুল খরচ হচ্ছে তা কমানোর জন্য তড়িঘড়ি বর্তমান সরকার ফেলে দিয়ে নতুন সরকার গঠনের জন্য প্রস্তুতি শুরু করে দিলো মহারাষ্ট্রের ভাজপা শিবির।


তার জন্য তুরুপের তাস হিসেবে ভাজপা আসরে নামালো তাদের অঙ্গুলিহেলনে চলা কলের পুতুলের মতো মহারাষ্ট্রের পদ্মপাল ভগত সিং কোশিয়ারিকে।


মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে গতকাল তাঁর মন্ত্রিসভার নয়জন বিদ্রোহী মন্ত্রীর দপ্তর কেড়ে নেন। এই দপ্তরগুলো তাঁর অনুগত অন্য মন্ত্রীদের মধ্যে বণ্টন করেছেন তিনি। তাতেই সিঁদুরে মেঘ দেখতে শুরু করেছে ভাজপা। তড়িঘড়ি মহারাষ্ট্রের পদ্ম পাল মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যসচিবের কাছে চিঠি পাঠিয়ে জানতে চেয়েছেন গত তিন দিনে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে নির্দেশে মহারাষ্ট্র সরকার কি কি সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং কি কি নির্দেশিকা জারি করেছে।


শুধু এখানেই শেষ নয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত আগামী 11 জুলাই পর্যন্ত মহারাষ্ট্র বিধানসভার বিদ্রোহী বিধায়কদের বিধায়ক পদ খারিজ সিদ্ধান্ত স্থগিত রাখার পাশাপাশি উদ্ধব ঠাকরে নেতৃত্বে কংগ্রেস এবং এনসিপি জোটের সরকারের আস্থা ভোট স্থগিতের নির্দেশ দিলেও ইতিমধ্যেই গুয়াহাটিতে বসে থাকা বিদ্রোহী শিবসেনা বিধায়কদের নেতা একনাথ শিন্ডের লিখিত আবেদনের ভিত্তিতে চলতি সপ্তাহেই জরুরী ভিত্তিতে বিধানসভার বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করে সেখানে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের জন্য নির্দেশ দিতে পারেন মহারাষ্ট্রের পদ্মপাল। এমনটাই জানা গিয়েছে মহারাষ্ট্রের রাজভবন সূত্রে।


এই পরিস্থিতিতে একনাথ শিন্ডের নেতৃত্বাধীন বিদ্রোহী শিবসেনা এবং কংগ্রেস বিধায়ক দের সঙ্গে নিয়ে সরকার গঠনের জন্য যাবতীয় আগাম প্রস্তুতি এখন থেকেই সেরে ফেলতে চাইছে ভাজপা নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। তার জন্য আজ সকালেই জরুরী ভিত্তিতে মহারাষ্ট্রের সমস্ত ভাজপা বিধায়কের উপরে হুইপ জারি করা হয়েছে দুপুরের মধ্যেই তারা যেন মুম্বাইতে এসে উপস্থিত হন দলীয় সদরদপ্তরে। শুধু তাই নয় আগামী 15 দিন কোন ভাজপা বিধায়ক যেন দেবেন্দ্র ফড়নবিশ কে না জানিয়ে মুম্বই ছাড়ার সিদ্ধান্ত না নেন কারণ যে কোন সময় সরকার গঠন করতে হতে পারে। প্রসঙ্গত মহারাষ্ট্র বিধানসভা নির্বাচন প্রসঙ্গ হওয়ার পরে মহারাষ্ট্রের ভাজপা অনুগত পদ্মপালকে কাজে লাগিয়ে মধ্যরাতে দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করে শপথ বাক্য পাঠ করিয়ে দিয়েছিলেন ভগৎ সিং কোশিয়ারি।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here