নোটবন্দির সময় মোদি’র ডিজিটাল স্বপ্ন
পেটিএম বিপাকে

0
933

৩৬৫ দিন: ভারতে নোট বাতিল করার পরে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশের প্রায় সমস্ত প্রথম সারির সংবাদপত্রে পাতা জোড়া বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন পেটিএম করো। স্বাভাবিকভাবেই দেশের কোটি কোটি মানুষ টাকা জমা রেখেছেন পেটিএম অ্যাকাউন্টে। অথচ ভারতবর্ষের এই কোটি কোটি গ্রাহকের জমা রাখা টাকা নিয়ে অনলাইন জুয়া খেলার অভিযোগ উঠেছে পেটিএম এর বিরুদ্ধে। গুগল প্লে স্টোর এপ আন্তর্জাতিক আইন লংঘন করার অভিযোগে গতকাল প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল পেটিএম অ্যাপ। তারপরে গুগলের নিয়ম মেনে পেটিএম সংশ্লিষ্ট অনলাইন জুয়া অপশন ডিলিট করার পরেই আবার ফিরে আসতে পেরেছে গুগল প্লে স্টোরে।
কিন্তু ভারতের মতো দেশে যেখানে অনলাইন জুয়া কার্যত নিষিদ্ধ এবং খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আশীর্বাদ ধন্য হওয়ার জেরে অনলাইন ব্যাংকিংয়ের অনুমতি পাওয়ার ফায়দা নিয়ে যেভাবে পেটিএম গ্রাহকদের টাকা জুয়া খেলায় লাগাচ্ছে, তাতে দেশজুড়ে রীতিমতো আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে কোটি কোটি গ্রাহকের মধ্যে।
গুগল আজ জানিয়ে দিয়েছে, যে কোনও ভাবেই তারা জুয়াখেলা মেনে নেবে না প্ল্যাটফর্মে। এমনকী কোনও অ্যাপ যদি বাইরের ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দেয় যেখানে গিয়ে খেলা যায় ও সেখান থেকে অর্থ উপার্জন করা যায়, সেটাও মেনে নেওয়া হবে না বলে জানায় গুগল। যদিও পেটিএম এর দাবি, তাদের  Paytm Cricket League-এ ক্যাশব্যাক দিচ্ছিল তারা। সেটা নিয়ে আপত্তির জেরেই গুগল আনলিস্ট করে দিয়েছে অ্যাপটিকে। প্রসঙ্গত বিভিন্ন ফ্যান্টাসি গেমের থেকে অভিযোগ পেয়েই পেটিএমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিল গুগল। ক্যাশব্যাকের বিষয়টি সরিয়ে দিয়ে এখনকার জন্য প্লে স্টোরে ফিরল পেটিএম। কিন্তু যেকোনো মুহূর্তে আবার বিভিন্ন নিষিদ্ধ হয়ে যাওয়া চিনা অ্যাপ এর মত রাতারাতি পেটিএম ভারতের বাজারে নিষিদ্ধ হয়ে যাবে কিনা তানিয়া নিশ্চয়তা দিচ্ছে না ভারত সরকার অথবা পেটিএম কর্তৃপক্ষ। এই আতঙ্কের জেরে আজ সকাল থেকেই কয়েক লক্ষ পেটিএম গ্রাহক পেটিএম অ্যাকাউন্টে জমা থাকা টাকা ট্রান্সফার করে অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here