তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ’র অভিযোগ, রাজভবন থেকে সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়ানোর ঘৃণ্য খেলায় বিজেপি

0

Last Updated on October 11, 2020 10:00 PM by Khabar365Din

৩৬৫দিন। বেআইনি অস্ত্র সহ বিজেপি কর্মী বলবিন্দর সিংকে পুলিশ আটকের সময় তাঁর মাথার পাগড়ী খুলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে বিজেপি এবং রাজ্যপাল এবার সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক ঘৃণ্য চক্রান্ত শুরু করেছে। রবিবার তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এমনই অভিযোগ তুললেন। বাংলার ঐতিহ্য ও গরিমাকে ভুলে বিজেপি এবং রাজ্যপালের যৌথ চক্রান্তের তীব্র নিন্দা করে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন,”বিজেপি ও রাজ্যপাল যেভাবে একত্রিত হয়ে রাজ্যের মানুষের ঐতিহ্য ও গরিমাকে আঘাত করছেন, শিখ সম্প্রদায়ের মানুষও তা পছন্দ করছে না। আমরা পরিষ্কারভাবে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলতে চাই রাজভবনে বসে রাজ্যপালের আসনকে কলঙ্কিত করা যাবেনা।
এই রাজ্যে কখনোই সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়িয়ে দেওয়া যাবেনা। রাজ্যপালকে বলবো সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করার নাম করে তিনি যে দলীয় দায়িত্ব পালন করছেন তা বাংলার মানুষ মেনে নেবে না। বাংলার সম্প্রীতি ঐক্য আমরা নষ্ট হতে দেব না।” পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ অতি মারির মধ্যেও যেভাবে উন্নয়নের ধ্বজা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তাতে বিজেপি পায়ের তলায় মাটি খুঁজে না পেয়ে রাজভবনের মাটিকে ব্যবহার করছে। এদিন তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিজেপি এবং রাজ্যপালকে সতর্ক করে তৃণমূল মহাসচিব বলেন, বাংলায় সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়ানোর এই ঘৃণ্য খেলা বিজেপি এবং রাজ্যপাল বন্ধ করুক। প্রসঙ্গত, বলবিন্দর নিয়ে জলঘোলা করতে রবিবারই শিখ সম্প্রদায়ের ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্যকে রাজভবনে ডাকা হয়। তারপরই রাজ্য সরকার কে নিশানা করে জাগদীপ ধনকর টুইটারে লেখেন, এমনটা কোনো সভ্য দেশে হয় না।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here