রং দে মুঝে গেরুয়া

0

Last Updated on December 19, 2020 6:14 PM by Khabar365Din

বিদ্রোহীর নাটক শেষ – নব্য হিন্দু শুভেন্দু

- Advertisement -

৩৬৫দিন। বিদ্রোহের অবসান। যেমন ছক ছিল সেই ছকেই শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে। বিজেপির তথাকথিত নব্য হিন্দুত্বে দীক্ষা নিলেন। রং দে মোহে গেরুয়া।

প্রত্যাশিতভাবেই বিজেপিতে যোগ দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে পৌঁছনোর আগেই কার্যত লুকিয়ে সেখানে পৌঁছে যান শুভেন্দু। সভামঞ্চের পিছনেই অমিত শাহর জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। অমিত শাহ আসতেই তার সঙ্গে দেখা করে শুভেন্দু অধিকারী বিজেপির মঞ্চে উঠে পড়েন। প্রথমে অমিত শাহ সহ অন্যান্য বিজেপি নেতাদের সঙ্গে হাত হাত ধরে ফটো সেসন করেন। দলবদল করে আসা শুভেন্দুর মঞ্চে বসার জায়গা হয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশেই। বিজেপির পতাকা শুভেন্দুর হাতে তুলে দিতেই অমিত শাহের কাছে মাথা নত করে ফেলেন তিনি। কেন্দ্রিয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধরে বেশ কয়েক বার তাকে প্রণাম করতে থাকেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী। শুভেন্দুর পর রাজ্যের মোট ১১জন বিধায়ক ও ১ জন সাংসদ বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেন।

দিল্লিতে কৃষক মরছে এদিকে কৃষকের ঘরে নাটকীয় লাঞ্চ

গোটা দেশের কৃষকদের ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়ে মেদিনীপুরে কৃষক পরিবারে গিয়ে নটাংকি করলেন অমিত শাহ। শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুরে পৌঁছে বালিজুরিতে কৃষক পরিবার সনাতন সিংহের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজের নামে লোক দেখানো নাটক করতে পৌঁছে যান অমিত শাহ, কৈলাশ বিজয়বর্গী দিলীপ ঘোষেরা। অমিত শাহর আসার কথা কয়েকদিন আগেও জানতেন না পশ্চিম মেদিনীপুরের কৃষক সনাতন সিংহ। বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব প্ল্যান করে, এই মুহূর্তে গোটা দেশের কৃষক আন্দোলন থেকে নজর ঘোরানোর জন্য অমিত শাহর সফরে কোনও আদিবাসি পরিবার নয়, কৃষক পরিবারকেই টার্গেট করতে হবে। যদিও অমিত শাহ, অন্য বিজেপি নেতৃত্ব ও তাদের ঘিরে থাকা সিআরপিএফের চাপে কৃষক সনাতন সিংহকে খুঁজেই পাওয়া যায়নি। বালিজুরিতে এসেই সনাতন সিংহর ঘরের বাইরে খাটিয়ায় এসে বসেন অমিত শাহ, তখনও বিজেপি নেতৃত্ব ছাড়া কৃষক পরিবার বা অন্য কোন কৃষক আর কেউ উপস্থিত ছিল না সেখানে। কিন্তু লোক দেখানো মধ্যাহ্নভোজের সময় সনাতন সিংহকে নিয়ে আসা হয়। কৃষকের পরিবারে মধ্যাহ্নভোজের নামে স্টার হোটেলের পাঁচ রকম ভাজা, সরু চালের ভাত, ডাল ছিল মেনুতে। প্রসঙ্গত, দেশ থেকে কৃষি আইন প্রত্যাহার করার দাবিতে কৃষকের আন্দোলন যখন দেশ ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক মহল কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর প্রবল চাপ সৃষ্টি করছে, তখন পশ্চিম মেদিনীপুর সফরে কৃষক পরিবারে মধ্যাহ্নভোজে কৃষকের পাশে থাকা আদতে সেই নাটকেরই পুনরাবৃত্তি করলেন অমিত শাহ।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here