গান স্যালুটে বিদায় দেবশ্রী, উপস্থিত ডিজি

0
1229

৩৬৫দিন।চুঁচুড়া পুলিশ লাইনে গান স্যালুটে
শেষ শ্রদ্ধা জানানো হলো নিহত রাজ্য পুলিশের ১২ নম্বর ব্যাটেলিয়ানে কমান্ডিং অফিসার দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়কে। ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র সহ অন্যান্য পুলিশ আধিকারিকরা। এদিন
দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পরই রাজ্য পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা পৌঁছে যান হুগলির ইমামবাড়া হাসপাতালে। শুক্রবার ময়নাতদন্তের পরে চুঁচুড়ার পুলিশ লাইনেই দেবশ্রী সহ তিন পুলিশকর্মীকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।
বৃহস্পতিবার রাতেই দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায় শিলিগুড়ির ডাবগ্রামের ১২ নম্বর ব্যাটালিয়নের সদর দফতর থেকে কলকাতার পর্ণশ্রীর
বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন। শুক্রবার ভোর সাড়ে ছ’টা নাগাদ হুগলির দাদপুরের কাছে হোদলা এলাকায় দুই নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি বালির ট্রাকের পেছনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সজোরে ধাক্কা মারে দেবশ্রীর স্করপিও গাড়িটি। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান গাড়ীর চালক সম্ভবত ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। ঘটনাস্থলেই গাড়িটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। গাড়ির চালক সহ দেবশ্রী ও তাঁর দেহরক্ষীকে চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।
দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায় সিটি কলেজ থেকে ভূগোল নিয়ে গ্রাজুয়েশন করার পর ১৯৮৮ সালে কলকাতা পুলিশে যোগ দিয়েছিলেন। ২ বছর ছিলেন পুলিস ট্রেনিং স্কুলে। এরপর লালবাজার ওমেন গ্রিভান্স সেলে সাব ইন্সপেক্টর পদে ছিলেন। এসআই পদে কলকাতার ইকবালপুর , পার্কস্ট্রিট ও হেয়ার স্ট্রিট থানার দায়িত্বও সামলেছেন তিনি।২০১০ সালে নর্থ পোর্ট থানার ওসি পদে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন কলকাতা পুলিশের প্রথম মহিলা ওসি। নর্থ পোর্ট থানার ওসি হিসাবে যোগ দেওয়ার আগে ডিটেক্টিভ ডিপার্টমেন্ট-এর ইম্মোরাল ট্রাফিকিং উইং-এর ইনচার্জও ছিলেন তিনি।২০১৬ সালে রাজ্য পুলিশে ডেপুটেশনে যাওয়ার আগে কলকাতায় ডেপুটি কমিশনার পদে ছিলেন। রাজ্য পুলিশে দ্বাদশ ব্যাটালিয়নের সিও হিসাবে বর্তমানে কর্মরত ছিলেন। নিজের দক্ষতার পরিচয় রেখেছেন রাজ্য পুলিশেও। তাঁর পরিবারে স্বামী ও ১৮ বছরের এক সন্তান আছে।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here