দেশজুড়ে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতিবাদ সত্ত্বেও আজ NEET পরীক্ষা, রাজ্যে অতিরিক্ত সরকারি বাস এবং মেট্রো

0

Last Updated on September 13, 2020 10:46 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। নিট পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে আজ সকাল ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ১৫ মিনিট অন্তর পরিষেবা দেবে মেট্রো। নোয়াপাড়া থেকে কবি সুভাষ পর্যন্ত আপ এবং ডাউন লাইন মিলিয়ে মোট ৬৬টি মেট্রো চলবে বলে জানিয়েছে মেট্রো ভবন। কোভিড বিধি মেনেই বজায় রেখে পরীক্ষার্থীদের পরিষেবা দেওয়া হবে। বলা বাহুল্য, এক্ষেত্রে টোকেন এবং স্মার্ট কার্ডের পরিবর্তে পরীক্ষার্থীদের জন্য ছাপানো কাগজের টিকিটের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
অন্যদিকে, প্রায় ৬ মাস পর সোমবার থেকে কলকাতায় চালু হচ্ছে মেট্রো পরিষেবা। ইস্ট-ওয়েস্ট এবং কবি সুভাষ-নোয়াপাড়া, এই দুই রুটেই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলবে মেট্রো। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর ক্ষেত্রে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে স্টেডিয়াম পর্যন্ত পরিষেবা দেওয়া হবে। এই রুটে আপ এবং ডাউন মিলিয়ে ৩৬টা করে মোট ৭২টি ট্রেন চালানো হবে। পাশাপাশি, কবি সুভাষ থেকে দমদম-নোয়াপাড়া পর্যন্ত ৫৫টি আপ এবং ৫৫টি ডাউন মিলিয়ে মোট ১১০টি ট্রেন চালানো হবে। সোমবার থেকে আগামী বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না-পাওয়া পর্যন্ত এই নিয়মেরই চলবে কলকাতার লাইফলাইন। মেট্রো কর্তারা জানাচ্ছেন, ইস্ট-ওয়েস্ট এবং নর্থ-সাউথ, দুই ক্ষেত্রেই সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ১০ মিনিট অন্তর মেট্রো চলবে। কেবলমাত্র রবিবার পরিষেবা বন্ধ থাকবে।
যাত্রীদের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, স্মার্ট কার্ড ছাড়া তাঁরা স্টেশনে প্রবেশ করতে পারবেন না। এই পরিস্থিতিতে যাত্রীদের সুবিধার্থে ২২ মার্চ মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া সমস্ত স্মার্ট কার্ডগুলোকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৈধ হিসেবে গণ্য করার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। একইসঙ্গে পুরোনো কার্ডের থাকা টাকাও ব্যবহার করা যাবে আগামী ১ বছর। স্টেশন কর্তৃপক্ষকে দেখিয়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ কার্ডগুলোকে বৈধ করে নিতে হবে যাত্রীদের। এছাড়া, পথদিশা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে যাত্রীরা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য মেট্রো পাস বুকিং করতে পারবেন। যে স্টেশন থেকে উঠবেন, তার নাম এবং গন্তব্যস্থল, যাত্রার সময় ওয়েবসাইটে লিখে আবেদন করলেই মিলবে ই-পাস। এই পাস স্টেশনের গেটে দেখালে প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করতে পারবেন যাত্রীরা। কোভিড বিধি মেনে যাত্রীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। শহরের প্রত্যেকটি স্টেশনে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। থাকছে থার্মাল গান দিয়ে দেহের উত্তাপ মাপার ব্যবস্থাও।
লকডাউনে মেট্রোর রেকগুলোকে সচল রাখতে ধারাবাহিকভাবে ট্রায়াল চালিয়েছে মেট্রো ভবন। পরিষেবা আরও মসৃন করতে লাইন-সহ সুড়ঙ্গ, স্টেশনের মেরামতের কাজ চলছে দীর্ঘদিন ধরে। কোভিড পরিস্থিতিতে আইসিএমআর-এর বিধি অনুযায়ী পরিষেবা চালুর জন্য একাধিক পদ্ধতি অবলম্বন করেছে কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে। ইতিহাসে এই প্রথম ৬ মাসের জন্য থমকে ছিল পরিষেবা। এতদিন পর নতুনভাবে নব্য স্বাভাবিক জীবনে মেট্রো চালু হওয়ায় নিত্য যাত্রীদের কতটা সুবিধা হয়, সেটাই এখন দেখার।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here