প্রধানমন্ত্রীর মন কি বাতে ভিডিওতে ইউটিউবে ডিসলাইক-এর বন্যা

0

Last Updated on August 31, 2020 11:19 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন: মোদি ম্যাজিক নেগেটিভ। যে মোদি ম্যাজিকে ভর করে ২০১৪ এবং ২০১৯ লোকসভায় যেতে প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন, ২০২০ সালের অগাস্ট মাসের শেষ মন কি বাতে অনুষ্ঠানের ইউটিউব স্ট্রিমিং-এর রিপোর্ট দেখিয়ে দিল দেশ থেকে গায়েব হয়ে গিয়েছে সেই মোদি ম্যাজিক।
তিনি প্রায়ই বলেন ভারতকে তিনি ডিজিটাল ইন্ডিয়া বানিয়ে দেবেন। সেই ডিজিটাল ইন্ডিয়া তাকেই ভারতের ইতিহাসে সবথেকে অপছন্দের রাজনীতিবিদের স্বীকৃতি দিল গতকাল। রবিবার প্রধানমন্ত্রীর 68 তম মন কি বাতে অনুষ্ঠানের লাইভ স্ট্রেনিং করেছিল বিজেপির ইউটিউব চ্যানেল। সেই ইউটিউবেই লাইক এর বদলে লক্ষ লক্ষ লাইকের বন্যা বয়ে গেল প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শুনে। অর্থাৎ যত মানুষ এটিকে পছন্দ করেছেন, তার চেয়ে অনেক বেশি মানুষ অপছন্দ করেছেন। আজ সকাল পর্যন্ত গত 24 ঘন্টায় মোদির ভিডিওতে লাইক করেছেন মাত্র 42000 মানুষ, আর ডিসলাইক অথবা পছন্দ করেছেন 3 লক্ষ 32 হাজার!
কয়েকদিন আগেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিট এবং জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা পিছিয়ে না দেওয়ার সিদ্ধান্তে কেন্দ্রীয় সরকারের অনড় থাকা প্রসঙ্গে বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মন কি বাত অনুষ্ঠান করেন কিন্তু দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের মনের কথা বোঝেন না। সেই ছাত্র-ছাত্রীরাই খুব সম্ভবত গতকাল দলে দলে ডিসলাইক করেছেন মোদির বক্তব্যকে। দেশের লক্ষ লক্ষ ছাত্রছাত্রীরা যেখানে আশা করে বসে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হয়ত এই ভয়ানক করোনা সংক্রমনের আবহে পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়ার কথা ঘোষণা করবেন তার মন কি বাত এ অনুষ্ঠানে, সেখানে তিনি চর্চা করে গেলেন খেলনা শিল্প আর কুকুরের আত্মত্যাগ নিয়ে। স্বাভাবিকভাবেই তাতে তুমুল ক্ষিপ্ত দেশের ছাত্র এবং যুব সমাজ।
মূলত নিট ও জয়েন্ট পরীক্ষার্থীরাই দলে দলে প্রধানমন্ত্রীর এই ভিডিওটি ডিসলাইক করছেন। শুধু ইউটিউব নয়, ফেসবুক, টুইটারেও হচ্ছে প্রতিবাদ। কাল দিনভর টুইটার ট্রেন্ডিংয়ে উপরের সারিতে ছিল ‘মন কি নহি স্টুডেন্ট কি বাত’ হ্যাশট্যাগটি। যেটি কিনা রাহুল গান্ধীও ব্যবহার করেছেন।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here