মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে মানিকের সঙ্গে বিপ্লব

0

Last Updated on May 16, 2022 10:02 PM by Khabar365Din

৩৬৫দিন। আগরতলা। সোমবার দুপুর বারোটায় রাজ্য রাজনীতির সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে রাজ ভবনে শপথ নিলেন উপ মুখ্যমন্ত্রী সহ ১১ জন মন্ত্রী পরিষদের সদস্যরা। রাজ্যপাল সত্যদেও নারায়ণ আর্য উপ মুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দের্ব্বমা সহ বারোজন মন্ত্রীকে শপথ বাক্য পাঠ করান। ডঃ মানিক সাহা’র (Manik Saha) মন্ত্রীসভায় মোট ১১ জন মন্ত্রীকে স্থান দেয়া হয়েছে। বিপ্লব কুমার দেব’র (Biplab Deb) মন্ত্রীসভার উপজাতি কল্যান ও বন দপ্তরের মন্ত্রী মেবার কুমার জমাতিয়াকে বাদ দেয়া হয়েছে ডঃ মানিক সাহা’র মন্ত্রী সভায়। নতুন মুখ হিসাবে আনা হয়েছে আইপিএফটি’র কাঞ্চনপুরের বিধায়ক প্রেম কুমার রিয়াংকে। এছাড়া নতুন করে মন্ত্রী সভায় আনা হয়েছে রামপদ জমাতিয়াকে। বহু মতানৈক্যতা কাটিয়ে শেষ পর্যন্ত রবিবার গভীর রাতে বিজেপি আইপিএফটির জোট সরকার তাদের মন্ত্রী পরিষদের সদস্যদের নাম চূড়ান্ত করতে পেরেছে। যতদুর খবর বর্তমান মন্ত্রী সভায় আসা অনেকেই মন্ত্রী পদে থাকতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছিল। এই নিয়ে জল অনেকদুর পর্যন্ত গড়িয়েছে। এমন কি উপ মুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দের্ব্বমাও মন্ত্রী সভায় না থাকার পক্ষে ছিলেন। শেষ পর্যন্ত দলের নির্দেশ এবং দিল্লির হাই কমান্ডের কথায় মন্ত্রী পরিষদ চূড়ান্ত হয়। এবং কাল্পনিক হাসি নিয়েই মন্ত্রী পরিষদের সদস্যরা সোমবার রাজভবনে এসে শপথ গ্রহন করেছেন । তবে সংবাদ লেখা পর্যন্ত মন্ত্রী সভায় দপ্তর বন্টন করা হয়নি।

- Advertisement -

তবে ধারনা করা হচ্ছে পূর্বতন মন্ত্রীদের কাছে থাকা দপ্তরগুলিই থাকবে। দুই একটি দপ্তরকে এদিক ওদিক করে নতুন দুই মন্ত্রীর কাছে কয়েকটি দপ্তর প্রদান করা হবে। রাজভবনে সোমবার বারোটায় শপথ গ্রহন শেষে মন্ত্রী পরিষদের সদস্যরা মহাকরনে আসেন এবং ডঃ মানিক সাহার নেতৃত্বে প্রথম মন্ত্রী সভার সভা করেন। প্রথম মন্ত্রী সভা থেকেই চারটি সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে সরকার। এই চারটি সিদ্ধান্ত হচ্ছে ন্যাশনাল হেল্থ পলিসি, আইটি ফেন্ডলি পলেসি, দিব্যাঙ্গদের জন্য বিশেষ পরিকল্পনা, এবং আদিবাসী জাতি উন্নয়ন। প্রথম মন্ত্রী সভার সভায় মুখ্যমন্ত্রী ডঃ মানিক সাহা রাজ্যের মন্ত্রীদের কাছে আবেদন জানিয়েছে পূর্বের মাতোই সবার সহযোগিতায় শক্তিশালী সরকার পরিচালনার। একই ভাবে সচিবালয়ে রাজ্যের মুখ্য আমলাদের সাথে সভা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ডঃ মানিক সাহা। সোমবার রাজভবনে মন্ত্রী পরিষদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব কুমার অলক। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সামাজিক ন্যায় প্রতিমন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিক, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব, সাংসদ বিনোদ সোনকর, সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা, বিধানসভার অধ্যক্ষ রতন চক্রবর্তী, উপাধ্যক্ষ বিশ্ববন্ধু সেন, আগরতলা (Agartala) পুর নিগমের মেয়র দীপক মজুমদার, বিধায়কগণ, রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক ভি এস যাদব এবং রাজ্য প্রশাসন ও আরক্ষা দপ্তরের উচ্চপদস্থ আধিকারিকগণ।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here