রানীগঞ্জে বেসরকারি কারখানায় দুর্ঘটনায় তিন শ্রমিকের মৃত্যু

0
79

৩৬৫ দিন| আসানসোল। রানীগঞ্জের মঙ্গলপুরে বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানার ছাইয়ের ট্যাঙ্ক পড়ে বড় দুর্ঘটনা ঘটল।  ওই ছাইয়ের ট্যাঙ্কের তলায় ৪ জন শ্রমিক চাপা পড়েছে বলে স্থানীয় সুত্রের খবর। একজন কোনও মতে বেঁচে গেলে, বাকি তিনজনকে এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে।

শনিবার রাতের শিফটে কাজ চলছিল রানীগঞ্জের মঙ্গলপুরে শ্যামসেল স্পঞ্জ আয়রন কারখানায়। রাত একটা নাগাদ বিকট শব্দে কারখানার ছাইয়ের ট্যাঙ্কারটি উপর থেকে খসে পড়ে।ওই কারখানার শ্রমিক কৈলাশপতি খাঁ জানিয়েছেন,  “গভীর রাতে এই ঘটনাটি ঘটে৷ ট্যাঙ্কারের তলায় চারশ্রমিক কাজ করছিলেন। আচমকা উপর থেকে লোহার বিশাল আকারের ট্যাঙ্কার তাদের উপরে পড়ে। তাতেই চাপা পড়ে চারজন। একজন কোনওমতে বেরিয়ে আসতে পারে। বাকি তিনজন ভারি ওই ট্যাঙ্কারের তলায় চাপা পড়েছে। অনুমান করছি ওরা তিনজনই মারা গেছে।”

শ্রমিকদের দাবি ট্যাঙ্কার নিয়ে বিপদের কথা আগেই কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছিল। কারখানার আরেক শ্রমিক দয়াময় গোপ জানান, “ট্যাঙ্কারটির মেরামতির কথা আমি বারবার কর্তৃপক্ষকে বলেছি। কিন্তু সেই কথা কানে দেয়নি কারখানা কর্তৃপক্ষ। তাই এতবড় দুর্ঘটনা ঘটে গেল।” শনিবার সকাল পর্যন্ত মৃতদেহগুলি উদ্ধার হয়নি। পুলিশ ও দমকল চেষ্টা চালাচ্ছে। গ্যাস কাটার দিয়ে ওই লোহার ট্যাঙ্কার কেটে মৃতদেহ উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ঘটনার খবর পেয়েই ভোর রাতে কারখানায় পৌঁছায় তৃণমূল কর্মীরা। তারা তদারকি করছেন উদ্ধার কাজে। স্থানীয় তৃণমূল নেতা জিতেন বাউরি জানান, মৃত শ্রমিকদের পরিবারের সদস্যদের চাকরি ও ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়েছি আমরা৷

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here