হর্ষল এবং চাহালের দুরন্ত বোলিং! অবশেষে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাল ভারত

0

Last Updated on June 15, 2022 8:38 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫দিন। দেওয়ালি ঠেকলে পিঠ লড়াই জীবন। এই মন্ত্রটাই আজ মনে করে মাঠে নেমেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। আজ হেরে গেলেই ঘরের মাঠে সিরিজ হারের লজ্জা হজম করতে হত। চরম লজ্জার হতো সেটা টিম ইন্ডিয়ার কাছে। অবশেষে বিশাখাপত্তনমের সমুদ্রের তীরে ম্যাচ জিতল ভারত। দলগত লড়াইয়ে জয়ে ফিরল ভারত। বিশাখাপত্তনমে তৃতীয় টি২০ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪৮ রানে হারিয়ে সিরিজ বাঁচিয়ে রাখলেন ঋষভ পন্থরা।

প্রথমে ব্যাট করে ১৭৯ রান করে ভারত। অর্ধশতরান করেন ঈশান কিশন ও রুতুরাজ গায়কোয়াড়। রান তাড়া করতে নেমে যুজবেন্দ্র চহাল ও হর্ষল পটেলের দাপটে ১৩১ রানে শেষ হয়ে যায় তেম্বা বাভুমাদের ইনিংস। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল করেন ভারতের দুই ওপেনার। প্রথম ওভার থেকেই মারমুখী মেজাজে ছিলেন গায়কোয়াড় ও ঈশান। বেশি আক্রমণাত্মক ছিলেন গায়কোয়াড়। আনরিখ নোকিয়াকে এক ওভারে পর পর পাঁচ বলে পাঁচটি চার মারেন তিনি।

মাত্র ৩০ বলে অর্ধশতরান করেন গায়কোয়াড়। ওভার প্রতি ১০-এর গতিতে রান উঠছিল। প্রথম সাত ওভার ডিআরএস প্রযুক্তি ছিল না মাঠে। তাতে অবশ্য সমস্যায় পড়েনি ভারত।ভারতকে প্রথম ধাক্কা দেন কেশব মহারাজ। ৫৭ রানের মাথায় আউট হন গায়কোয়াড়। উইকেট পড়লেও রানের গতি কমেনি। আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলছিলেন ঈশান। তিনিও নিজের অর্ধশতরান পূর্ণ করেন। তার পরেই ভারতকে বড় ধাক্কা দেন ডোয়েন প্রিটোরিয়াস।

৫৪ রানের মাথায় ঈশানকে সাজঘরে ফেরান তিনি। তিন উইকেট পড়ে যাওয়ার পরে রানের গতি কমে যায়। ১২.১ ওভারের পর থেকে ৩৩ বল কোনও বাউন্ডারি হয়নি। মাঝের ওভারে দুরন্ত বল করেন দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা। উইকেটের বাইরের দিকে বল করছিলেন প্রিটোরিয়াসরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাওয়ার প্লে-তে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দুই ওপেনার তেম্বা বাভুমা ও রিজা হেনড্রিক্স আউট হয়ে যান।

দুরন্ত বল করেন ভারতের দুই স্পিনার যুজবেন্দ্র চহাল ও অক্ষর পটেল। ডোয়েন প্রিটোরিয়াস ও রাসি ভ্যান ডার ডুসেনকে আউট করে দক্ষিণ আফ্রিকাকে বড় ধাক্কা দেন চহাল। ৫৭ রানে ৪ উইকেট পড়ে যায় প্রোটিয়াদের। দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব গিয়ে পড়ে আগের ম্যাচের নায়ক হেনরিখ ক্লাসেন ও অভিজ্ঞ ডেভিড মিলারের উপর। কিন্তু এই ম্যাচে দাগ কাটতে পারেননি মিলার। তিন রানের মাথায় হর্ষলের বলে আউট হন তিনি। ক্লাসেন ভাল খেললেও অপর প্রান্ত থেকে বিশেষ সাহায্য পাননি তিনি।

জরুরি রানরেট ক্রমাগত বাড়ছিল। ২৯ রানের মাথায় ক্লাসেনকে আউট করে দক্ষিণ আফ্রিকার কফিনে শেষ পেরেক পুঁতে দেন চহাল। মাত্র ২০ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন তিনি। তাঁর ঘূর্ণির জবাব ছিল না প্রোটিয়া ব্যাটারদের কাছে।ম্যাচে ফেরার সুযোগ ছিল না দক্ষিণ আফ্রিকার।

শেষ পর্যন্ত ১৯.১ ওভারে ১৩১ রানে অলআউট হয়ে যায় তারা। ২৫ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন হর্ষল। ৪৮ রানে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে ভারত।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here