স্বাধিকার ভঙ্গের প্রস্তাব গ্রহণ করলেন বিধানসভার অধ্যক্ষ, শুভেন্দুর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ

0

Last Updated on March 18, 2022 12:18 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। ৪ ভাজপা বিধায়কের অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রাথমিক তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় ভাজপা (BJP)নেতা শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari) বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিলেন বিধানসভার (West Bengal Assembly)অধ্যক্ষ। বিধানসভায় শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব গ্রহণ করলেন স্পিকার। গতকালের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ৪ বিধায়ক যে অভিযোগ করেছেন, তার ভিত্তিতেই এই স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব (Privilege Motion) গ্রহণ করেন স্পিকার। অভিযোগ, গতকাল শুভেন্দু অধিকারী গুলি করে মারার হুমকি দেন। পাশাপাশি, রায়গঞ্জের ভাজপা বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণীর বাড়িতে আয়করের চিঠি দেওয়ার হুমকিও দেন। ৪ বিধায়কের সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক সত্যতা যাচাই করে বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব গ্রহণ করলেন স্পিকার। প্রসঙ্গত, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগকারী ৪ বিধায়ক হলেন বাগদার বিশ্বজিৎ দাস, বড়জোড়ার তন্ময় ঘোষ, রায়গঞ্জের কৃষ্ণ কল্যাণী এবং কালিয়াগঞ্জের সৌমেন রায়। তাঁরা ৪ জনই ভাজপার টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে জিতেছেন। নোটিসের প্রেক্ষিতে প্রিভিলেজ কমিটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে। ২৮ মার্চের মধ্যে প্রিভিলেজ কমিটিকে রিপোর্ট পেশের নির্দেশ দিয়েছেন স্পিকার। শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব গ্রহণের বিষয়ে স্পিকার বলেন, বিধানসভার রেকর্ডে হুমকি আছে। সেটা খতিয়ে দেখেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
৪ ভাজপা বিধায়ক গতকাল আলাদা আলাদা করে অভিযোগ জানিয়েছিলেন স্পিকারের কাছে। আজ অধিবেশনের শুরুতেই স্পিকার জানিয়ে দেন, বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ তাঁর কাছে জমা পড়েছে। স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাবটি তিনি গ্রহণ করেছেন। শুভেন্দু অবশ্য গতকালই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেন। ওদিকে আজ ৪ বিধায়কের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হল। গতকাল রাত থেকেই তাঁদের বাড়িতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। একইসঙ্গে তাঁদের ব্যক্তিগত সুরক্ষারও ব্যবস্থা করা হয়েছে।
অন্যদিকে, বিধানসভার ভিতরে বসার জায়গা বদল করা হল ৪ বিধায়কের। ৫-এর বদলে ৬৯ নম্বর আসনে বসবেন বিশ্বজিৎ দাস। ৬ নম্বরের জায়গায় ৭০ নম্বর আসনে বসবেন কৃষ্ণ কল্যাণী। ৪৭-এর বদলে ৭১ নম্বর আসনে বসবেন সৌমেন রায়। ৬৩ নম্বরের পরিবর্তে ৭২ নম্বর আসনে বসবেন তন্ময় ঘোষ। তৃণমূল বিধায়কদের আরও কাছে বসার জায়গা পেলেন ৪ বিধায়ক।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, গতকাল মুখ্যমন্ত্রীর জবাবি ভাষণ দেওয়ার সময়, শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে ভাজপা বিধায়করা বিধানসভা থেকে ওয়াকআউট করেন। সেই সময় শুভেন্দু অধিকারী ও কৃষ্ণ কল্যাণীর মধ্যে কার্যত বচসা বেধে যায়। এরপরই রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী স্পিকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে অভিযোগ করেন, বিধানসভায় দাঁড়িয়ে, শুভেন্দু অধিকারী, বৃহস্পতিবার তাঁর বাড়িতে আয়কর হানার হুমকি দিয়েছেন। বিধানসভায় কৃষ্ণ কল্যাণীর এই অভিযোগ শুনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এটা খুবই গুরুতর অভিযোগ। বিধানসভায় যে কোনও বিধায়ক, তাঁর বক্তব্য জানাতে পারেন। সেজন্য তাঁকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বোঝাই যাচ্ছে ইডি, সিবিআই, আয়কর দফতর কারা চালায়। স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় (Biman Banerjee) বলেন, অভিযোগ সত্যি প্রমাণিত হলে, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিস দেওয়া হবে। অন্যদিকে, শুভেন্দু অধিকারী বলেন, বললেই প্রিভিলেজ নোটিস আনা যায় না। তার আগে প্রমাণ করতে হবে, যে আমি এগুলো বলেছি।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here