প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ৪৫ মিনিটের বৈঠকে মমতা’র দাবির মধ্যে ভ্যাকসিন ও নামবদল

0

Last Updated on July 27, 2021 9:03 PM by Khabar365Din

নয়াদিল্লি থেকে

- Advertisement -

রিপোর্ট সৌগত মন্ডল | ছবি অমিত বন্দোপাধ্যায়


৩৬৫ দিন। বাংলার নামবদলের অনুমতি দেওয়া নিয়ে দীর্ঘদিন ফাইল আটকে রেখেছে কেন্দ্রীয় সরকার। আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে সেই বিষয়টি আরো একবার তুলে ধরলেন মমতা। পাশাপাশি বাংলায় জনসংখ্যার বিন্যাস এর তুলনায় কেন্দ্রীয় সরকার অপেক্ষাকৃত কম সংখ্যক ভ্যাকসিন পাঠাচ্ছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। ৭ নম্বর লোক কল্যাণ মার্গে ঠিক ৪টেয় ঢুকে প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা বৈঠক হয় নরেন্দ্র মোদি এবং মমতার। আজ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে একান্ত বৈঠকের পরে বেরিয়ে এসে মমতা বলেন, অনেকদিন ধরেই পশ্চিমবঙ্গের নাম বদল নিয়ে কথা হচ্ছে। আমি বলেছি, এবার দয়া করে বিষয়টি দেখুন। বিধানসভা নির্বাচনের আগে থেকেই তিক্ত রাজনৈতিক চাপান-উতোর এরপরে তৃতীয়বার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পরে প্রথমবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে মমতা বলেন, কলাইকুন্ডায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কোনও কথা হয়নি। ভোটের পর দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ হল। এদিনের সাক্ষাতে করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে কথা হয়েছে। অনেক রাজ্যের থেকে কম টিকা পেয়েছে বাংলা। পশ্চিমবঙ্গের জনসংখ্যার নিরিখে এই সরবরাহ যথেষ্ট নয়। আমাদের টিকাকরণের হার ভাল। ইতিমধ্যে সংক্রমণ ৩৩ শতাংশ থেকে কমে ১ শতাংশে এসে দাঁড়িয়েছে। তবে আমরা চাই করোনার তৃতীয় ঢেউ আসার আগে পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যেকের টিকাকরণ সম্পূর্ণ করতে। প্রধানমন্ত্রীকে সে কথা জানিয়েছি। উনি বলেছেন তিনি বিষয়টি বিবেচনা করে দেখবেন।
যদিও তিনি যে দাবিগুলি জানিয়েছেন তার পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী কী জানিয়েছেন, সে বিষয়ে বিশদে কিছু বলতে চাননি মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অনুুুপস্থিতিতে তিনি কী বলেছেন সেটা বলা ঠিক হবে না৷ তবে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, তাঁর দাবিগুলি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি৷

আগামীকাল সোনিয়া মমতা চায় পে চর্চা

আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে সর্ব ভারতীয় রাজনীতিতে ভাজপা বিরোধী সমস্ত রাজনৈতিক শক্তিকে একজোট হয়ে এক ছাতার তলায় এসে লড়াই করার আহ্বান মমতা একুশে জুলাই এর ভার্চুয়াল মঞ্চ থেকে দিয়েছিলেন, সেই জোটে কংগ্রেসকে শামিল করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলেই মনে করছে রাজধানীর রাজনৈতিক মহল। যেভাবে আজ সকাল থেকে গান্ধী পরিবারের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত তিন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা কমলনাথ এবং আনন্দ শর্মার পাশাপাশি কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ অভিষেক মনু সিংভি মমতার সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন, তা আসলে কংগ্রেসের সঙ্গে তৃণমূলের সর্বভারতীয় স্তরে একজোট হয়ে আন্দোলনের প্রাথমিক প্রক্রিয়া বলে মনে করছে দিল্লির রাজনৈতিক মহল। সেই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক হবে বলে স্বীকার করে নেন মমতা। মমতা বলেন, সোনিয়া যে আমাকে চা খেতে ডেকেছেন বাড়িতে। কাল সোনিয়া চি’র সঙ্গে চায় পে চর্চা করব।

পেগাসাস ইস্যুতে মমতা

একুশে জুলাই এর ভার্চুয়াল মঞ্চ থেকেই মমতা স্লোগান তুলেছিলেন পেগাসাস পেগাসাস নরেন্দ্র মোদির নাভিশ্বাস। আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরে আবার এই বিষয়ে মমতা বলেন, পেগাসাস এস তে আমি এখনও বলবো প্রধানমন্ত্রীর একটি সর্বদলীয় বৈঠক ডেকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া উচিত। এছাড়াও সুপ্রিম কোর্টের নজরদারিতে একটি নিরপেক্ষ তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন রাষ্ট্রপতি এখন কাশ্মীরে রয়েছেন। আগামী পরশু দিন উনি দেখা করার সময় দিলেও রাষ্ট্রপতি ভবনে যাওয়ার জন্য ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ হয়ে যাওয়ার পরেও আরটিপিসিআর রিপোর্ট লাগে। মমতা আরও বলেন, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য আরটি পিসিআর করা দরকার। আমার ডবল ডোজ নেওয়া আছে, কিন্তু করোনা টেস্ট করাব কোথায়? এখন না হলে পরে না হয় দেখা করব, রাষ্ট্রপতি সুস্থ থাকুন।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here