সস্ত্রীক একই চিতায় বিপিন রাওয়াত, কামানের ১৭ তোপ ধ্বনিতে সেনার শেষকৃত্য সম্পন্ন হল

0
দিল্লি ক্যান্টনমেন্টের ব্রার স্কোয়ারে বিপিন রাওয়াত ও স্ত্রী মধুলিকার মুখাগ্নি করলেন তাঁদের কন্যা।

Last Updated on December 11, 2021 1:10 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। একই চিতায় পাশাপাশি শোয়ানো হল সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়াত ও তাঁর স্ত্রী মধুলিকাকে। ১৭ তোপধ্বনির মাধ্যমে জানানো হল শেষ শ্রদ্ধা- পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় সম্পন্ন হলো ভারতের প্রথম চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত এর শেষকৃত্য। শুক্রবার দুপুর ২.৩০ মিনিটে কামরাজ মার্গের বাসভবন থেকে শেষ যাত্রায় বেরোয় জেনারেল বিপিন রাওয়াত ও তাঁর স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতের মরদেহ। প্রায় ৮০০ সেনা জওয়ান শেষ যাত্রায় সামিল হন। রাওয়াত পরিবারের পাশাপাশি বহু সাধারণ মানুষও সামিল হন। শেষকৃত্যের দায়িত্বে ছিল জেনারেল বিপিন রাওয়াতের ইউনিট, ৫/১১ গোর্খা রাইফেলস। তিনি এই ইউনিটে কমিশন পান এবং পরবর্তীকালে এই ইউনিটকে কমান্ড করেন। পালাম বিমানবন্দরে জেনারেলকে শেষ শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল।

- Advertisement -

শুক্রবার সকাল থেকেই জেনারেল রাওয়াতের বাসভবনে আসেন বিভিন্ন দলের নেতারা সকাল দশটা নাগাদ আসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, রাজনাথ সিং। এগারোটা নাগাদ আসেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। এদিকে, বৃহস্পতিবার সংসদে বিরোধীদের শোকজ্ঞাপন করতে না দেওয়ায় রাজ্যসভা থেকে ওয়াক আউট করে তৃণমূল। চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের প্রয়াণ নিয়ে সমস্ত দলনেতাকে বলতে দেওয়ার আর্জি জানান রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে। যদিও সেই প্রস্তাব খারিজ করে দেন চেয়ারম্যান। সংসদের বাইরে সংবাদমাধ্যমে তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব বলেন, সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরা এক মিনিট নীরবতা পালন করেছেন, এবং আজ প্রতিবাদ, বিক্ষোভের দিন নয়। সংসদে কোনও বিশৃঙ্খলা হয়নি। আমরা চেয়েছিলাম, সমস্ত দলকেই শোকপ্রকাশ এবং সমবেদনা জানানোর সুযোগ দেওয়া হোক, যাতে সঠিক বার্তা যায় দেশবাসীর কাছে। যদিও আমাদের কথা শোনা হয়নি।খ এদিন দোলা সেন সহ তৃণমূলের লোকসভার নেতারা শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন জেনারেল রাওয়াত এবং তাঁর স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াত কে। বিকেল চারটে নাগাদ ব্রার স্কোয়ার ক্রিমেটোরিয়ামে শেষকৃত্য জেনারেল বিপিন রাওয়াতের। উপস্থিত বাংলাদেশ, নেপাল-সহ বিভিন্ন দেশের সামরিক প্রধানরা। শেষযাত্রায় ছিলেন তিন সেনা প্রধান। ১৭ বার তোপধ্বনিতে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য দেশের প্রথম সিডিএসের।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here