৩২ বছরের ইতিহাসে পুরভোটে কেউ টিকিট পেল না, অধিকারী পরিবারকে অবজ্ঞা ভাজপার

0

Last Updated on February 8, 2022 8:37 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে মেদিনীপুরের কলেজ ময়দানে অমিত শাহের (Amit Shah) মঞ্চে ভাজপা শিবিরে যোগ দেওয়ার পরে শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) ঘোষণা করেছিলেন মেদিনীপুরের তৃণমূল শূন্য করে ছাড়বেন একুশের বিধানসভা নির্বাচনে। একুশে মেদিনীপুরকে তৃণমূল শূন্য করতে পারেননি শুভেন্দু। কিন্তু গত কয়েক দশক ধরে যেখানে কাঁথি পৌরসভা (Kanthi Municipality)পুরোটাই অধিকারীময় হয়েছিল, সেই কাঁথি পৌরসভাকে অধিকারী শূন্য করে দিতে সক্ষম হলেন শুভেন্দু। নিজে ভাজপা শিবিরে গিয়ে যেমন মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেননি, তেমনি ছোট ভাই সৌমেন্দুকে ভাজপা শিবিরে নিয়ে গিয়ে ভাজপার তরফে পুর নির্বাচনের টিকিট পাইয়ে দিতে পারলেন না শুভেন্দু।

- Advertisement -

৩২ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম অধিকারী ছাড়া অনুষ্ঠিত হবে কাঁথি পুরসভার নির্বাচন। ১৯৯০ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত কাঁথি পুরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন শিশির অধিকারী (Sisir Adhikari)। ২০১০ সাল থেকে ২০২০ সাল অবধি চেয়ারম্যান ছিলেন সৌমেন্দু অধিকারী (Soumendu Adhikari)। এইবার অধিকারী শূণ্য হবে কাঁথি পুরসভার বোর্ড। ভাজপা (BJP) রাজ্য নেতৃত্ব সূত্রে জানা গিয়েছে, শুভেন্দু নিজের ছোট ভাইয়ের জন্য বহু তদ্বির করলেও মূলত কাঁথি পুরসভার চেয়ারম্যান থাকাকালীন সৌমেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে যে বিপুল পরিমাণ দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে এবং ইতিমধ্যেই তার তদন্ত শুরু করেছে রাজ্য সরকার, তার প্রেক্ষিতে সৌমেন্দু অধিকারীকে প্রার্থী করলে ভাজপার নিজস্ব যে কটা ভোট আসার কথা তাও চলে যাবে।

গতকাল রাতে ভাজপা রাজ্য কমিটির পক্ষ থেকে কাঁথি পৌরসভায় ভাজপা যে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে সেখানে প্রার্থী করা হয়েছে দলের নবনির্বাচিত ২ বিধায়ককে। জানিয়ে ইতিমধ্যেই তুমুল ক্ষোভ তৈরি হয়েছে প্রার্থী তালিকায় নাম থাকা দুই ভাজপা বিধায়ক এবং তাদের অনুগামীদের মধ্যে। কারণ একুশের বিধানসভা নির্বাচনেও ঠিক একই ভাবে প্রার্থী খুঁজে না পেয়ে বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo), লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee), জগন্নাথ সরকারের (Jagannath Sarkar) মতো সাংসদদের বিধায়ক পদে দাঁড় করিয়েছিল ভাজপা। কাঁথি পুরভোটে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী করা হয়েছে দুই বিধায়ক অরূপ দাস ও সুমিতা সিংহ এবং প্রাক্তন বিধায়ক ও ১২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর বনশ্রী মাইতিকেও। ১০ নং ওয়ার্ড থেকে প্রার্থী হয়েছেন অরূপ কুমার দাস, ৬ নং ওয়ার্ড থেকে সুমিতা সিংহ এবং ৯ নং ওয়ার্ড থেকে পুরসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। প্রকাশিত তালিকায় দেখা গিয়েছে, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে ভাজপা প্রার্থী আইনজীবী নির্মাল্য দাস, ১১ নম্বরে বিদেশ বসু মাইতি, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে শিউলি পণ্ডা, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে নবীন প্রধান, ১৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে তাপস দোলাই এবং ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে সুশীল দাসকে ভাজপার টিকিট দেওয়া হয়েছে। ২১ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন গোবিন্দ খাটুয়া। কিন্তু ইতিমধ্যেই প্রচার শুরু করে দেওয়ার শুভেন্দু অধিকারীর ছোটভাই সৌম্যেন্দু অধিকারীকে প্রত্যাশিতভাবে টিকিট দেয়নি ২১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here