পুরুলিয়ার জনসমুদ্রে মমতা’র হুঙ্কার বিজেপি মাওবাদীদের থেকেও মারাত্মক, কাল কেউটে

0

Last Updated on January 19, 2021 11:21 PM by Khabar365Din

পুরুলিয়া থেকে ইন্দ্রনীল সাহা ছবি মৈনাক বাগচী

- Advertisement -

৩৬৫দিন। আপদ বিদায় হয়েছে। থাকলেই জ্বালাতো। রাজনীতিতে ৩ধরনের লোক থাকে ১জন লোভী, যে সবসময় সব কিছু চায়, দ্বিতীয়জন হল ভোগী যে সব ভোগ করতে চায়। আর একধরন হল ত্যাগী যারা ত্যাগ করে। মঙ্গলবার পুরুলিয়ার জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী এভাবেই নাম না করে বাংলার মীরজাফরকে বুঝিয়ে দিলেন যে তিনি লোভী আর ভোগীদের দলেই পড়েন। এদিন হুটমুরা ফুটবল মাঠ থেকে একদিকে, সরকারের একাধিক সফল প্রকল্প নিয়ে যেমন বলেন মুখ্যমন্ত্রী তেমনি বিজেপির বাংলা দখলের যে অপচেষ্টা নিয়েও সরাসরি আক্রমনের পথে হাঁটেন বাংলার জননেত্রী।

বিজেপিকে আক্রমন

বিজেপি নির্বাচনের আগে ভ্ন্ডামি করে। নির্বাচনের পরে কাঁচকলা দেখিয়ে চলে যায়। ওরা ধমকালে মুখে নিকো প্লাস্ট দিয়ে দিন। বিজেপির এই কারাগার ভেঙে উড়িয়ে দিন।বিজেপি ফেক ভিডিও ছড়াচ্ছে।বেনামে ওয়াটস অ্যাপ গ্রুপ খুলে মিথ্যা রটাছে।একটাও বিশ্বাস করবেন না। বিজেপি এলে পুরুলিয়া থাকবে না।বিজেপি মাওবাদীদের থেকে মারাত্মক। বাঁশ হয়ে ঢুকবে ফালি হয় বেরোবে। অজগর আর কেউটের মধ্যে কে বিষাক্ত। এরা এক ছবলেই শেষ করে দেবে খাবে গিলবে বাকি ফেলে দেবে।

গরীবের বাড়িতে ফাইস্টারের খানা

গরীবের বাড়িতে গিয়ে কাসার থালা সাজিয়ে ফাইভ স্টার এর খাবার খায়। হিমালয়ের মিনারেল ওয়াটার খান। যে মিনারেল ওয়াটারের দাম ৬০লিটার।বুঝুন ওরা কেমন গরীব। আর আমি সরকারের ৬ টাকার প্রাণ ধারার জল খাই। যেই বাড়িতে যায় সেখানে আগে চুনকাম, সিমেন্ট ল্যাপা হয়। আর খাবারের জন্য আগে থেকে লোক আসে।ফাইভ স্টার হোটেলের আলুপোস্ত খান আর গরীব সাজেন। শুনলাম একজনের বাড়িতে গিয়ে খেয়েছে,সেই গরীব মানুষটা ধার করে খাইয়েছে ওদের।এখন ধার মেটাতে পারছে না।আমি বলব দরকার হলে এইসব মানুষদের নিজের পকেট থেকে টাকা দিয়ে সহযোগিতা করুন।

ইসু যখন বাংলা
ওরা তো বাংলাই জানে না । বঙ্গাল বলে। ওরা পুরুলিয়া চেনে না।ওরা আলচিকি,সাঁওতালি কিছু জানে না। ওরা বাংলাই চেনে না। ওরা আপনাদের কাছে এলে বলবেন বেরিয়ে যেতে।ওরা টাকা দিলে ওই পয়সায় মাংস ভাত খেয়ে।তৃণমূলকে ভোট দিন।

আদিবাসী উন্নয়নে সরকার

সাওতালি একাডেমী করা হয়েছে। আলচিকি সহ অন্যান্য ভাষা কে স্বীকৃতি দিয়েছে সরকার।আলচিকি অভিধান করেছি।আদিবাসীদের জমি কেড়ে নেওয়ার বিরুদ্ধে আমরা।আমরা আইন করেছি তাই। কোনভাবেই গরীব আধিবাসিদের জমি নেওয়া যাবে না। এই কৃষি আইন প্রত্যাখ্যান করতে হবে।আগে জমি নিয়ে নিত।এখন এই আইনে জোতদাররা গরীবের ফসল নিয়ে নেবে। ফসল দেব না আমরা।তাই এই আইনের প্রথম থেকে প্রতিবাদ করছি।আর করে যাব। আদিবাসীদের সম্মান জানাতে লালগড়ে রঘুনাথ টুডু এর নামে সেতু করছি আমরা। বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছি। শুধু জুন মাস অব্দি পাওয়া যাবে না,আমরা সরকারের আসব তারপরেও বিনামূল্যে রেশন দেব ।

ভুয়ো ভোট সমীক্ষা

কিছু কিছু সংবাদ মাধ্যমকে ভয় দেখিয়ে ভোটের সমীক্ষা করিয়ে বলছে বিজেপি নাকি ৯০ টা আসন পাবে।সিপিএম কংগ্রেস ৭০টা আসন পাবে ওরা তো জ্যান্ত হয়ে গেল ।আমার কাছে খবর আছে অমিত শাহ এসব করাছে। আর জানবেন ওরা তৃণমূল কে যে কটা আন দেবে তার ডবল পাব।
দুয়ারের সরকারের সাফল্য
ইতিমধ্যে দু কোটি মানুষের কাছে পৌঁছে গিয়েছে দুয়ারে সরকার।তার মধ্যে ৭৫ শতাংশ কাজ হয়ে গিয়েছে।১০হাজার জনকে কাস্ট সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে।
এদিকে,প্রায় ১ বছর পর মুখ্য মন্ত্রী পুরুলিয়ায় এলেন।তাই জনগনের মধ্যে সকাল থেকেই ব্যাপক উন্মাদনা ছিল।মুখ্যমন্ত্রী আসার আগে থেকেই ভিড় বাড়তে শুরু করে। মুখ্যমন্ত্রী সভা মাঠে আসতেই দেখা গেল গোটা পুরুলিয়া যেন বাঁধ ভেঙে ফেলেছে।কয়েক লক্ষ লোকের ভিড় দেখেই মমতা বলেন,দিল্লির নির্দেশে কেউ কেউ আমি আসার আগে সভার ছবি তুলে বলে কেউ নেই।এখন তাদের বলতে চাই একবার এসে এখন দেখে যাক কত লোক রয়েছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here