বুদ্ধদেবের পদ্ম খেতাব প্রাপ্তি ক্লোজ চ্যাপ্টার নয়, কেন ধন্যবাদ জ্ঞাপন!ঘুমন্ত ব্যক্তি কখনো বিবৃতি জারি করতে পারে না

0

Last Updated on January 28, 2022 12:33 AM by Khabar365Din



- Advertisement -

পূষন গুপ্ত


১. মঙ্গলবার আমাদের বুলেটিনের রিপোর্টের পর রাতে পার্টির সম্পাদকমন্ডলীর এক সদস্য আমায় বলেন ‘বুদ্ধবাবুর ব্যাপারটা ক্লোজড চ্যাপ্টার। কেন ওটা আর খোচাখুঁচি করছেন?’ উনি বন্ধু লোক, খবরাখবর দেন। সৌজন্য বজায় রেখেই বললাম, ‘ক্লোজড চ্যাপ্টার নয়, এখনও তিনটে প্রশ্নের উত্তর আপনারা পার্টি থেকে দেননি। ১। মীরা ভট্টাচার্য (Mira Bhattacharya) উচ্চশিক্ষিত, তিনি শব্দের অর্থ বোঝেন। তিনি কেন্দ্রের ফোনের উত্তরে সম্মতিসূচক ধন্যবাদ দেওয়ার আগে কি পার্টি বা বুদ্ধবাবুকে (Buddhadeb Bhattacharya) জিজ্ঞাসা করেছিলেন? ২। আপনাদের সিপিএম (CPIM) দল পার্টি লাইন না মানার অভিযোগে জ্যোতি বসুকে (Jyoti Basu) প্রধানমন্ত্রী হতে দেননি। গোটা বিশ্ব বলেছিল ঐতিহাসিক ভুল। আপনারা গ্রাহ্য করেননি। সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের মতো নেতাকে পার্টিলাইন না মানার অভিযোগে বহিষ্কার করেছেন। আর ভাজপা (BJP) সরকার অসুস্থ বুদ্ধবাবুকে পদ্ম খেতাব দিলে কোনও এক হরিদাস পাল বিবৃতি দেন! নিদেন পক্ষে রাজ্য সম্পাদক বা সম্পাদকমন্ডলীর পক্ষ থেকে কেন বিবৃতি দেওয়া হল না? মাননীয় কমরেড আমার তৃতীয় প্রশ্ন। কেন সীতারাম ইয়েচুরি (Sitaram Yechury) জলঘোলা হওয়ার পর রাত ১০টায় ওই হরিদাস পালের বিবৃতিটাকে র‍্যাটিফাই করার চেষ্টা করলেন? কেন ফ্রেশ স্টেটমেন্ট দিলেন না? কেন রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র একটি অদ্ভুত বিবৃতিতে বললেন, ওকে বুদ্ধদেব জানিয়েছেন রাত ১০টায় (যখন বুদ্ধদেববাবু ঘুমোচ্ছেন) এই বিষয়ে সরকারি তরফে যেন কোনও ফোন না করা হয়, বাড়িতে না আসা হয়। সবকিছু পার্টি অফিসে জানাতে হবে। রাত সাড়ে ১০টায় কেন এই প্রশ্ন উঠল? রাজ্য সম্পাদক তো স্বীকারই করে নিলেন যে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে ওর বাড়িতে ফোন করা হয়েছিল এবং বাড়িতে দ্রুত পাঠানোর প্রসঙ্গ উঠেছিল। ঘটনা ঘটেছে দুপুর ৩টে। আর এসব জ্ঞানের উপলব্ধি হয়েছে রাত সাড়ে দশটায়। যখন অসুস্থ নেতা ঘুমোচ্ছেন। কমঃ প্রমোদ দাশগুপ্ত, কমঃ মুজাফফর আহমেদ, কমঃ জ্যোতি বসুর পার্টির ২০২২ সালে এত করুণ হাল হয়েছে, পার্টির এই ন্যূনতম সিদ্ধান্তটি নিতে সাড়ে ৭ ঘণ্টা সময় লাগল? মার্কসবাদী কমিউনিস্ট পার্টির কি এতটাই শোচনীয় হাল, যে অজয়—বিজয়ের মতো শিখন্ডিকে সামনে রেখে বুদ্ধদেবকে ভাজপা সরকারের দেওয়া পদ্ম খেতাব আড়াল করতে হবে? প্রতি পদে তো বামরাম প্রমাণিত হচ্ছে। প্রতি পদে তো অসংগতি। শাক দিয়ে কি মাছ ঢাকা যায় কমরেড? কি করে একে ক্লোজড চ্যাপ্টার বলব? প্রতিদিন তো ঘটনার নেপথ্যে তথ্য উঠে আসছে।

২. একটি প্রাসঙ্গিক তথ্য। কমঃ ভ্লাদিমির ইলিচ লেনিন ৫৩ বছর বয়সে অসুস্থ হওয়ার পর তাকে গোপনে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় গোর্কি প্যালেসে। প্রায় অরণ্যে ঘেরা এক চমৎকার দুর্গ। পরবর্তীকালে জায়গার নাম দেওয়া হয় গোর্কি লেনিন স্কি। প্রাসঙ্গিক হল একটি গুরুত্বপূর্ণ রহস্য । লেনিন (Lenin) মারা যান ২১ জানুয়ারি। ১৯ জানুয়ারি তাঁর নামে একটি স্বাক্ষরহীন বিবৃতি প্রকাশ হয়। তাতে বলা হয়, ‘কমরেড দেশবাসী আমি বেশ ভাল আছি। চিন্তা করবেন না। অথচ চিকিৎসদের তথ্য অনুযায়ী ১৮ তারিখ রাতেই গভীর কোমায় চলে যান লেনিন। তাহলে কে ওই বিবৃতি লিখলেন? কোমাগ্রস্ত লেনিন? মনে রাখতে হবে এই বিবৃতি রুশ কমিউনিস্ট পার্টির সদর দফতর থেকে রিলিজ করা হয়নি। বেসরকারিভাবে মিডিয়ার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। লেনিন নিউরোসিফিলিসে মারা গিয়েছিলেন নাকি রক্তবাহী ধমনীর স্ট্রোকে, তা আজ পর্যন্ত অজ্ঞাত। কেননা কোন প্রেসক্রিপশন বা ডেথ সার্টিফিকেট সংরক্ষিত হয়নি। কমিউনিস্ট পার্টি এই পদ্ধতিতেই চলে। বিস্ময়ের কিছু নেই।

৩. আগ্রহী পাঠকরা অনুগ্রহ করে উপরে মুদ্রিত ইয়েচুরি, সূর্যকান্তর বিবৃতি দুটি পড়ুন। রহস্যটি বুঝতে পারবেন।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here