কেন্দ্রের প্রতিহিংসা ফাঁস হাইকোর্টে আপিল করল সিবিআই ৪ জনের জামিনে স্থগিতাদেশ

0
478

খবর ৩৬৫ দিন টিম

- Advertisement -

৩৬৫ দিন। সন্ধ্যায় বিশেষ সিবিআই আদালত অন্তর্বর্তী জামিনের আবেদন মঞ্জুর করার পরও সোমবার রাতেই তা স্থগিত করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। আগামী বুধবার নারদা মামলার পরবর্তী শুনানি হবে, অর্থাৎ আগামী বুধবার পর্যন্ত মুক্তি পাবেন না পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, বিধায়ক মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাদের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রাখা হবে প্রেসিডেন্সি জেলে। বিশেষ সিবিআই আদালত জামিনে মুক্তির নির্দেশ দেওয়ার পরেও এদিন রাতে ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র, শোভন চট্টোপাধ্যায়- চার নেতাকে মুক্তি দেয়নি সিবিআই। প্রসঙ্গত সোমবার সকালে জগদীপ ধনকরের ‘ অনৈতিক’ অনুমতির ওপর ভিত্তি করে সিবিআইয়ের অফিসারেরা পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, বিধায়ক মদন মিত্র, শোভন চট্টোপাধ্যায়কে বাড়িতে গিয়ে গ্রেফতার করে। তারপর তাদের একে একে নিজাম প্যালেসে নিয়ে আসা হয়। তারপর নিজাম প্যালেসে হাজির হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিম্ন আদালতে 4 জনের জামিন মঞ্জুর করার পরও তাঁদের নিজাম প্যালেসে হেফাজতে রেখেই বিশেষ সিবিআই আদালতের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। পাশাপাশি, হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল এবং বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় বেঞ্চে নারদ মামলা পশ্চিমবঙ্গের বাইরে সরানোরও আবেদন জানানো হয়। সোমবার রাতেই প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে ওই আবেদনের ভার্চুয়াল শুনানি শুরু হয়। ডিভিশন বেঞ্চের অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়, যিনি রাজ্যের বিরুদ্ধে রায় দিতে সিদ্ধহস্ত, কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ শুনানি শেষে নিম্ন আদালতে জামিনের রায়কে স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়। সাংসদ আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এখনো নোটিশ পাইনি, তবে এই ধরনের প্রসিডিউর আগে কখনো দেখিনি। ভাবা যায় না। ‌

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here