সাগর মেলার প্রস্তুতি দেখতে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, কোভিড মোকাবিলায় বিশেষ নজরদারি

0

Last Updated on December 27, 2021 11:56 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। মেলার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে মঙ্গলবার দুপুরেই গঙ্গাসাগর যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। গঙ্গাসাগরে পৌঁছেই আগামীকাল বিকেল চারটের সময় পুজোও দেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। আবহাওয়া খারাপ হওয়ার জন্য বুধবারের বদলে আগামীকালই গঙ্গাসাগর যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, কালই গঙ্গাসাগর যাচ্ছি। পৌঁছে বিকেল ৪টে নাগাদ পুজো দেব। প্রসঙ্গত, গঙ্গাসাগরে তিন দিনের সফরে যাচ্ছেন মমতা। মঙ্গলবার সেখানে গিয়ে কপিল মুনির আশ্রমে তাঁর পুজো দেওয়ার কথা রয়েছে। তারপর মেলার প্রস্তুতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখে বৃহস্পতিবার তাঁর ফিরে আসার কথা রয়েছে। এবার মেলা শুরু হবে ৮ জানুয়ারি থেকে, চলবে ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত। এবারের মেলায় কোভিড মোকাবিলা সর্বাত্মকভাবে করা হবে। ২২৫০ টি সরকারি, ৫০০টি বেসরকারি বাস, ১০০টি লঞ্চ, ৭০টি বিশেষ ট্রেন চালানো হবে। ভিড় যেন না হয়, সেজন্য মেলার মধ্যে ভিভিআইপি গাড়ি চালানোর অনুমতি দেওয়া যাবে না। নিরাপত্তা ব্যবস্থা পাশাপাশি কোভিড পরিস্থিতির দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রেস্ট্রিকশনস আবার হতে পারে। বাইরে থেকে লোক আসছে। ৩০০ জন আসছে, তারা আবার আরও লোকজনের মধ্যে মিশে যাচ্ছে।

- Advertisement -

সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। প্রসঙ্গত ৬০০ বেডের কোভিড হাসপাতাল তৈরি করা হয়েছে গঙ্গাসাগরে। জ্ঞানবন্ত সিং এর নেতৃত্বে একটি টিম পাঠানো হবে। মন্ত্রী নেতাদের মধ্যে মন্ত্রী পুলক রায়, মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, মণীশ গুপ্ত, শামীমা শেখ, গিয়াস উদ্দিন মোল্লা, মন্টু রাম পাখিরা, কলকাতা পুরসভার মেয়র মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সহ একাধিক নেতৃত্ব গঙ্গাসাগর মেলা উপলক্ষে উপস্থিত থাকবেন। ডিজির নেতৃত্বে কন্ট্রোল রুম খোলা হবে। স্বরাষ্ট্র সচিবের নেতৃত্বে কন্ট্রোল রুম খোলা হবে নবান্নে। ৬৫০০ ভলিন্টিয়ার, ১০ হাজারের বেশি টয়লেট, আড়াই হাজারের বেশি বিচ ভলেন্টিয়ার থাকবে। এগারোটা কোয়ারেন্টাইন সেন্টার, ৮টা সেফহোম, তিনটি এম্বুলেন্স, ২টি এয়ার অ্যাম্বুলেন্স, গ্রিন করিডোর এর ব্যবস্থা থাকছে। হলদিয়ায় দায়িত্বে থাকছেন সৌমেন মহাপাত্র, মানস ভুঁইয়া।‌ কলকাতার মাঠে আর টিপিসিআর টেস্ট করানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পর্যটন ভেবে গঙ্গাসাগর মেলাকে ব্র্যান্ডিং করা হবে। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, কেউ যেন কোন দুষ্কর্ম করতে না পারে। বিভেদ ছড়াতে না পারে সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। অন্যদিকে রাজ্য সরকারের প্রকল্প গুলোকে হিন্দি, বাংলা ভাষায় প্রচার করা হবে। ৩৫টা গেট করেছে পর্যটন দফতর। বেহালার কাউন্সিলরদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে যে সকল বাস গঙ্গাসাগর মেলায় যাচ্ছেন সেখানে পুণ্যার্থীদের সবরকম সহযোগিতা করার। ডায়মন্ডহারবার মেডিকেল কলেজ, পিজি, বাংলার হাসপাতাল পর্যন্ত রেড করিডোর করা হবে কোভিড পরিস্থিতির মোকাবিলায়।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here