বিমানবাবুরা ভুল করছেন
তৃণমূল নয়, বিজেপি শত্রু

0

Last Updated on November 20, 2020 3:28 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। কে প্রধান শত্রু? বিজেপি না-তৃণমূল? এই ইস্যুতে এবার সংঘাতে জড়াল সিপিএম এবং লিবারেশন। সংবাদমাধ্যমের সামনে দাঁড়িয়ে রীতিমতাে একে অপরের বক্তব্যকে যুক্তিহীন বলে দাবি করলেন দীপঙ্কর ভট্টাচার্য এবং বিমান বসু। এই পরিস্থিতিতে বাম মহলের আশঙ্কা, এর জেরে নির্বাচনে আগে বৃহত্তর বাম ঐক্যের মধ্যে বড় ফাঁটল ধরতে পারে। আর সেটা হলে বিজেপি আরও সুবিধা পেয়ে যাবে।ঘটনার সূত্রপাত বিহার নির্বাচনের ফলাফল ঘােষণার দিন। সেই সময় দীপঙ্করবাবু পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট সম্পর্কে আলােচনা করতে গিয়ে বলেন, রাজ্যের মূল সমস্যা হল, বামেরা বিজেপির পরিবর্তে তৃণমূলকে টার্গেট করে চলেছে। যদিও, জাতীয় প্রেক্ষাপটের নিরিখে বিজেপি আমাদের মূল শক্র। ওদের রুখতে হবে। কিন্তু এখানে লড়াইটা তৃণমূল কেন্দ্রিক হয়ে যাচ্ছে।ণ বস্তুত, দীপঙ্কর ভট্টাচার্যের এই বক্তব্যের পর লিবারেশন বিরুদ্ধে ক্ষোভ পােষণ করতে দেখা যায় বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুকে। গত মঙ্গলবার বাম-কংগ্রেসের বৈঠক শেষে দীপঙ্কর ভট্টাচার্যর বক্তব্যকে কার্যত খণ্ডন করে ফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু বলেন, অনেকে মনে করছেন, শুধু বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করলেই হবে। এটা ঠিক না। বিজেপি আমাদের এক নম্বর শত্ৰু, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু, তৃণমূলকে পাশে নিয়ে নয়। এরা বিজেপির সঙ্গে বােঝাপড়া করছে। বুধবার বিমানের বক্তব্যকে কেন্দ্র করে দীপঙ্কর ভট্টাচার্যর পালটা প্রতিক্রিয়া, রাজ্যে বামপন্থীদের মধ্যে একটা ভুল ধারণা তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে বিমান বসু যেটা বলেছেন। তিনি বাম আদর্শের দিক থেকে অনেক অভিজ্ঞ। কোথাও একটা ভুল বােঝাবুঝি হয়েছে। আমি বার বার বলছি, দেশের এক নম্বর শত্রু বিজেপি।অর্থাৎ, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে টার্গেটের মূলে রাখা নিয়ে লিবারেশন বং সিপিমের মধ্যে সংঘাত যে ক্রমে বৃহত্তর আকার ধারণ করছে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ থাকছেনা। বিহারে ১৯ সিটে প্রার্থী দিয়ে ১২ আসনে প্রবল জয়লাভের পর আত্মবিশ্বাসী লিবারেশন বাংলাতেও প্রার্থী দেওয়ার কথা ভাবছেন।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here