রাজভবনের সামনে প্রতিবাদের চেহারা পাল্টাচ্ছে

0

Last Updated on May 20, 2021 12:42 PM by Khabar365Din

৩৬৫দিন।সারা বিশ্বজুড়ে প্রচুর নন ভায়োলেন্স প্রতিবাদ হয়েছে। ইউরোপ কিংবা আমেরিকায় এমন অভিনব প্রতিবাদ বেশ জনপ্রিয়। জেমন ডিয়ারি প্যাকেজ দুধের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে মার্গারেট থ্যাচারের বাড়ির সামনে কয়েকশো বিড়াল নিয়ে প্রতিবাদ। আবার কখনো প্রটোবাদীদের কারাবন্ধীর প্রতিবাদে হংকং এর প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে থেকে ওড়ানো লক্ষ পায়রা। এবার এমনই নন ভায়োলেন্স প্রতিবাদের সাক্ষী থাকলো শহর কলকাতা।রাজ্যপাল ভেড়ার পাল! এই স্লোগান তুলে ভেড়াদের আসল ঠিকানা চেনাতেই এবার রাজভবনে হাজির হল সিটিজেনস এগেইনস্ট ডার্টি পলিটিক্স এন্ড করাপশন নামে এক সংগঠন। লকডাউনের দুপুরে পদ্ম পালের বিরুদ্ধে এমনই অভিনব প্রতিবাদে দেখল শহরবাসী।করোনা পরিস্থিতির মধ্যে নারোদা টেপ কাণ্ড নিয়ে সোমবার রাজ্যের নেতা-মন্ত্রীদের গ্রেফতার করার প্রতিবাদে লকডাউনের মাঝে যেভাবে রাস্তায় লোক নেমেছিল তার জন্য দায়ী একমাত্র রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। তাই সটান ভেড়ার পাল নিয়ে রাজভবনের সামনে হাজির হলেন সিটিজেনস এগেইনস্ট ডার্টি পলিটিক্স এন্ড করাপশনের সমাজকর্মী সুমন মৈত্র। যদিও তাকে দ্রুত রাজ ভবন এর সামনে থেকে সরিয়ে দেয় পুলিশ। তার দাবি, শহরের ভেড়াদের আসল ঠিকানা ছেনাতেই রাজভবনে নিয়ে গেছিলাম। যেখানে করোনার সংক্রমণ প্রতিদিন বাড়ছে,মানুষের মৃত্যু হচ্ছে , অক্সিজেনের সংকট তৈরি হচ্ছে, সেখানে এখনই এরকম গ্রেফতারি প্রয়োজন কি? তদন্ত চলছে চলুক কাউকে গ্রেফতার করতেই পারে সিবিআই। কিন্তু এই সংকট পরিস্থিতি কেটে যাবার পর গ্রেফতার করা যেতেই পারত। অন্তত সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা কমত। এর জন্য একমাত্র দায়ী রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। রাজ্যের প্রথম সিটিজেন হওয়ার জন্য তাকেই এই দায় নিতে হবে। রাজ্যপাল এই দায় না নিলে আর কে নেবে?

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here