বাবুলের বার্গেনে কাজ হল, দিল্লি থেকে ডাক এলো, রাতে বাবুলকে ফোন জেপি নাড্ডার

0

Last Updated on July 14, 2022 8:26 PM by Khabar365Din

৩৬৫দিন। বাবুলের বার্গেনের রাজনীতিতে ঢোক গিলল মোদি – শাহ। শনিবার ফেসবুকে অভিমান করে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার ঘোষনা করেছেন। ফেসবুক পোস্ট করার কয়েক ঘন্টার মধ্যে বাবুলের মান ভাঙ্গাতে নামল ভাজপার কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। মান-অভিমানের খেলার পরই ফোন করে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হল বাবুল সুপ্রিয়কে। রাত আটটা ৪০মিনিট নাগাদ বাবুলকে ফোন করেন ভাজপা কেন্দ্রীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।দুজনের মধ্যে প্রায় ১০মিনিট ফোন কথা হয়। কেন বাবুল রাজনীতি ছাড়তে চাইছে তাও জানতে চান তিনি। একইসঙ্গে সব মান অভিমান ভুলে রাজনীতিতে সক্রিয় থাকার কথা বলেন কেন্দ্রীয় সভাপতি। আসানসোলের সাংসদ বলেন, তিনি দিল্লি যাবেন। বাবুল পার্টির ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন, জেপি নাড্ডা তাকে ফোন করে আগামী সপ্তাহেই দিল্লিতে ডেকে পাঠিয়েছেন। শুধু তাই নয়, বাবুল বলেছেন, এখনো তো পার্টি ছাড়িনি। নরেন্দ্র মোদি – অমিত শাহ প্রণম্য ব্যক্তি। দেখি ওনারা কি বলেন।যদিও বাবুলের সঙ্গে নরেন্দ্র মোদী নাকি অমিত শাহ, কে বৈঠক করবেন তা এখনো জানা যায়নি। মন্ত্রিত্ব হারানোর পরই বারবার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অভিমানের কথা জানিয়েছি আসছিলেন আসানসোলের সাংসদ। শনিবার রাজনীতি ছাড়ার কথা ঘোষণা করেন ফেসবুক। পার্টির একাংশ বলছেন, বাবুল সুপ্রিয়র এত গুরুত্ব তা জানতাম না। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্ব ফিরে পেতে অথবা কোন ভালো পদের জন্যই ফেসবুক এই অভিমানের খেলা খেললো বাবুল। যদি ইস্তফা দিতেই হয় তাহলে অধিবেশন যখন চলছে তখন লোকসভার স্পিকারের কাছে সাংসদ পদ ছাড়ার জন্য ইস্তফাপত্র দিলেন না কেন? সেআইডিকে না গিয়ে ফেসবুকে বার্গেনের রাজনীতি নামল। যাতে দিল্লির কাছে আবারও নিজের দর বাড়ানো যায়। শেষপর্যন্ত বাবুলের ‘আলবিদা’ ডায়লগেই গলে গেল মোদি শাহরা। নতুন মন্ত্রিসভায় ঠাঁই হয়েছে নিশিথ প্রামাণিক, জন বারলা, শান্তনু ঠাকুর এমনকি দলে সব থেকে আন্ডারটোন থাকা বাঁকুড়ার সাংসদ সুভাষ সরকারে। কিন্তু মোদির সবথেকে কাছের লোক বলে দাবি করে আসা হাইপ্রোফাইল বাবুলের চাকরি খোয়া গেছে । বিধানসভা ভোটে ভাজপা মুখথুবড়ে পড়লেও ৭৭টি আসন পেয়েছে। আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলার কানেকশন কাটতে চাইছেন না মোদি শাহ। আর তাই দিল্লির ডাক ।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here