শিয়ালের হামলায় জখম ৪ পাল্টা শিয়াল পিটিয়ে খুন

0
75

৩৬৫ দিন ।  হরিশ্চন্দ্রপুরে আবার শিয়ালের আক্রমণে গুরুতর জখম হলো ৪ জন কৃষক। এমনিতেই গত কয়েকদিনে হরিশ্চন্দ্রপুর জুড়ে শেয়াল হানার ঘটনার জেরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। এরই মধ্যে আবার একই ঘটনা ঘটায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকা জুড়ে। এরপরই ক্ষিপ্ত জনতা শিয়ালকে পিটিয়ে মারে বলে অভিযোগ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে,  হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার সুলতাননগর গ্রাম পঞ্চায়েতের ডহরা এলাকায় শুক্রবার রাতে সকালে কাজ করে বাড়ি ফেরার সময়  আয়নাল হক (৫৮) ,মাসিরুল হক (১৮), রবিউল ইসলাম শেয়াল আক্রমণে জখম হন। শিয়ালের সংখ্যা বেশ কয়েকটি ছিল। শিয়ালের হানায় গুরুতর জখম হন কৃষক আয়নাল হক ও তার ছেলে মাসিরুল হক এবং প্রতিবেশী রবিউল ইসলাম। এদের তিনজনের শরীর থেকে মাংস খুবলে নেয় শিয়ালের পাল। গ্রামবাসী হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকা এদেশে চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অন্যদিকে শনিবার ভোরে তুলসিহাটা গ্রামে একই শিয়ালের দ্বারা আক্রান্ত হন কৃষক সকলু দাস।  (৪০)। তবে সকালের পাল্টা আক্রমণে ঘটনাস্থলে একটি শিয়াল প্রাণ হারায়। তাকেও চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছে বলে খবর।

এদিকে সকাল সকাল শিয়াল আক্রমণের ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকা জুড়ে। ইতিমধ্যে শেয়াল আক্রমণের ঘটনা নিয়ে বিধানসভায় রাজ্যের কাছে শেয়াল নিয়ন্ত্রণ এবং এলাকাবাসী নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন এলাকার বিধায়ক তজমুল হোসেন। বন মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক আশ্বাস দেন শেয়াল নিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কিন্তু সেই আশ্বাস দেওয়া সত্তেও একের পর এক ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী।

তুলসিহাটা এবং সুলতান নগর গ্রামের বাসিন্দাদের বক্তব্য, দিনের-পর-দিন এলাকায় শিয়ালের উপদ্রব বেড়ে চলেছে । আগে রাতে আক্রমণ চালাচ্ছিল শিয়ালের দল । এখন সকালেও ঘরবাড়িতে হাঁস-মুরগি ধরতে শিয়ালের দল ঢুকে পড়ছে। তাতে জখম হচ্ছে অনেক গ্রামবাসীরা। এই পরিস্থিতিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন গ্রামের মানুষ। 

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here