মমতার মাস্টারস্ট্রোক, পক্ষীরাজের ফোন ট্যাপ কাণ্ডে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠন

0
396

৩৬৫ দিন। পেগাসাস স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে ফোনে আড়িপাতা কাণ্ডে তদন্ত কমিশন গঠন করল বাংলার সরকার। দেশের মধ্যে প্রথম রাজ্য হিসেবে বাংলাই পেগাসাস কাণ্ডে তদন্ত কমিশন গঠন করল। সোমবার দিল্লি রওনা হওয়ার আগে মুখ্যমন্ত্রীর ডাকা বিশেষ মন্ত্রিসভার বৈঠকে তদন্ত কমিশনকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি মদন ভিমরাও লকুর এবং কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্য এর নেতৃত্বে তদন্ত কমিশন গঠন করার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পেগাসাস স্পাইওয়্যার এর মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব, সংবাদমাধ্যম, সিভিক সোসাইটি, প্রত্যেককেই নজরবন্দি করে রাখা হয়েছে। আমরা ভেবেছিলাম, গত এক সপ্তাহ ধরে সংসদ বিষয়টি নিয়ে উত্তাল হওয়ার পর কেন্দ্রীয় সরকার নিশ্চয়ই তদন্ত করবে, সুপ্রিম কোর্টের কোন বিচারপতিকে দিয়ে তদন্ত করবে কেন্দ্রীয় সরকার এবং মানুষ বিচার পাবে। কিন্তু আমরা দেখলাম সংসদে বিষয়টি উঠে আসার পরও, এই বিষয় নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কোন ভ্রুক্ষেপ নেই।

- Advertisement -

আমি দিল্লি যাবার আগে, রাজ্য মন্ত্রিসভার সম্মতি নিয়ে তদন্ত কমিশন গঠন করল বাংলার সরকার। দেশের মধ্যে প্রথম রাজ্য হিসেবে বাংলার সরকার এই বিষয়ে তদন্ত কমিশন গঠন করেছে। দুজন গুরুত্বপূর্ণ প্রাক্তন বিচারপতির নেতৃত্বে এই তদন্ত কমিশন গঠন করা হল। সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি মদন ভিমরাও লোকুর এবং কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্য এর নেতৃত্বে এই তদন্ত কমিশন গঠন করা হয়েছে। কমিশন দেখবে, কারা হ্যাকিং করেছে, কিভাবে হ্যাকিং করেছে, কিভাবে প্রতিটি মানুষের মুখ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ‌ প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে ফোনে আড়িপাতা কান্ড সামনে আসার পর কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন তীব্রতর করেছে বাংলার সরকার। পাশাপাশি দিল্লিতে বাদল অধিবেশন চলাকালীন সংসদের ভিতরে ও বাইরে এই ইস্যুতে আলোচনা ও পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি করে কেন্দ্রের ওপর ক্রমাগত চাপ বাড়িয়ে চলেছে তৃণমূল। কিন্তু তদন্ত তো দূরের কথা, এই প্রসঙ্গে সংসদে আলোচনা করতে প্রস্তুত নয় কেন্দ্রীয় শাসকদল ভাজপা। এমনকি বিরোধীদের কণ্ঠস্বর দাবিয়ে রাখার জন্য তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদকেও গোটা অধিবেশনের সময়সীমা জুড়ে সাসপেন্ড করা হয়। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধী রাজনৈতিক ঐক্যকে জোটবদ্ধ হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন। আজ বিকেলেই তিনি দিল্লিতে গিয়ে পৌঁছাবেন। সেখানে বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বর সঙ্গে বৈঠকে বসবেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। বিরোধীদের প্রতি জোটবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যদি কেউ না জাগে, তাহলে তাকে জাগাতে হয়। আমাদের এই ছোট পদক্ষেপ (তদন্ত কমিশন গঠন করা), আশা করি অন্যান্য সকলকে জাগাবে। এই তদন্ত কমিশনকে আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে সম্মতি দেওয়া হয়েছে। কার্যক্রমও( মিনিটস) তৈরি হয়ে গেছে। আমরা দুই প্রাক্তন বিচারপতিকে শীঘ্রই যোগদান করে তদন্ত শুরু করার আহ্বান জানাচ্ছি। বাংলায় রাজনৈতিক দল আছে যাদের ফোন ট্যাপ করেছে, বাংলার সাংবাদিকদের ফোন ট্যাপ করা হয়েছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here