অমিত শাহই সমবায় ব্যাংকের হর্তাকর্তা – শুভেন্দুর মতো রাজনৈতিক নেতা নিযুক্ত হতে পারবেন না

0

Last Updated on July 10, 2021 9:03 PM by Khabar365Din

গৌতম লাহিড়ী। নয়াদিল্লি : অমিত শাহই এবার থেকে সমবায় ব্যাঙ্কের হর্তাকর্তা হলেন। তিনিই ব্যাঙ্কেরর সর্বসময়ের ম্যানেজিং ডিরেকটর নিয়োগ করবেন। রিজাভা ব্যাঙ্কের নয়া নির্দেশনামা অনুসারে কোনো শুভেন্দু অধিকারীর মতো সাংসদ-বিধায়ক , পুরপিতা বা রাজনৈতিক নেতা সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান হতে পারবেন না। গত ২৫ জুন দেশজুড়ে যেদিন বিজেপি জরুরী অবস্থার বিরূদ্ধে প্রতিবাদদিবস পালন করছে সেইদিন রিজার্ভব্যংক সংসদে পাশ হওয়া ব্যাঙ্কিং নিয়ন্ত্রণ আইন অনুসারে কলমের খোঁচায় রাজ্য সরকারগুলির ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হলো। শুধুই কি বাংলার সমবায় ব্যাংকের ক্ষমতা কুক্ষিগত করার জন্য এই নির্দেশাবলী জারি হয়েছে? নোট বাতিলের পরে তিন বছর ধরে গুজরাট সমবায় ব্যাংকে তিন হাজার কোটি টাকার বেশি পুরাননা নোট বদল হয়েছে ধারাবাহিক ভাবে। সেই সব ব্যাংকের মধ্যে প্রায় সবগুলিতেই বিজেপি নেতারা চেয়ারম্যান। এমনকি স্বয়ং অমিত শাহও চেয়ারম্যান ও বোর্ড অব ডিরেকটারসের সদস্য ছিলেন। এসব তথ্য পাওয়া গিয়েছিল আরটিআই জবাব থেকে। বিজেপি অবশ্য একটা মানহানির মামলাও করে। লোকসভায় গত বছর ব্যাংকিং নিয়ন্ত্রণ আইন অর্ডিন্যান্স বিল আলোচনার সময়ে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণবলেছিলেন রিজার্ভ ব্যাংকের কাছে সমবায় ব্যাংকগুলি সম্পর্কে বহু অভিযোগ আসছে।

- Advertisement -

তাই নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। তাছাড়া রিজার্ভ ব্যাংক তো স্বশাসিত সংস্থা। অযথা সন্দেহ করছেন কেন? সন্দেহ দানা বাঁধছে হঠাত অমিত শাহকে কেন জাতীয় স্তরে সমবায় মন্ত্রী করা হলো? এই প্রথম কেন্দ্রে সমবায় মন্ত্রী। এতোদিনতো এই মন্ত্রি হতেন রাজ্য মন্ত্রিসভায়। যেহেতু সমবায় রাজ্য তালিকা ভূকতো বিষয়। সন্দেহ বাড়ছে ক্যাবিনেট সচিবালয়ের বিজ্ঞপ্তি থেকে। কেন্দ্রে ‘সহযোগিতার মন্ত্রক নাম দিয়ে যে মন্ত্রক গড়া হয়েছে তার কাজ কি? বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় দেশে সমবায় আন্দোলনকে মজবুত করতে এই মন্ত্রক প্রশাসনিক-আইনী-নীতিগত কাঠামো তৈরি করবে। তৃণমূল স্তরে মানুষদের কাছে সমবায়ের সুফল পৌঁছে দিতেই এই মন্ত্রক। এমনকি সমবায়ের ব্যবস্থাপনায় ‘সহজে ব্যবসা করার প্রথা লাগু করবে। রিজার্ভ ব্যাংকই যদি সব করবে তাহলে মন্ত্রকের দায়িত্ব ব্যাখ্যা করা হলো কেন? এই মন্ত্রক চাইলে রিজার্ভ ব্যাংকে সুপারিশ করবেন বর্তমানের চেয়ারম্যান বরখাস্ত করার। অথবা কেন্দ্রীয় সরকার সুপারিশ করবেন রিজার্ভ ব্যাংককে। এতে কেবলমাত্র রাজ্যেরই নয়, রিজার্ভ ব্যাংকের স্বাধনতা খর্ব হবে নাকি? রিজার্ভ ব্যাংকের সার্কুলার অনুসারে প্রত্যেক সমবায় ব্যাংক একজন পেশাগত দক্ষ একজিকিউটিভ ডিরেকটার নিয়োগ করবে। এই নিয়োগের অনুমোদন দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। ফলে পশ্চিমবঙ্গে কে নিযুক্ত হবেন সেটার সুপারিশ করবেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। এক্ষেত্রে বিরোধি নেতা চেয়ারম্যান না থাকলেও তাঁর সুপারিশের ব্যাকতিকেই যে অমিত শাহ নিয়োগ করবেন তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here