রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গান স্যালুটে সুব্রত মুখার্জির শেষকৃত্য সম্পন্ন

0

Last Updated on November 5, 2021 11:22 PM by Khabar365Din

৩৬৫দিন। রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হল মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের। শুক্রবার কেওড়াতলা মহাশ্মশানে গান স্যালুট দিয়ে তাকে বিদায় জানানো হয়। কেওড়াতলা মহাশ্মশানে তাকে শ্রদ্ধা জানান তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।এদিন সকাল ১০ টা নাগাদ পিস ওয়ার্ল্ড থেকে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় রবীন্দ্র সদনে। বামফ্রন্ট, কংগ্রেস এবং বিজেপির প্রতিনিধিরা তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। বামফ্রন্টের তরফের সুজন চক্রবর্তী সূর্যকান্ত মিশ্র সহ অন্যান্য বাম নেতা , কংগ্রেসের তরফে প্রদীপ ভট্টাচার্য এবং বিজেপি তরফে দিলীপ ঘোষ রাহুল সিনহা ও নিশীথ প্রামানিক হাজির ছিলেন। তৃণমূল কর্মী সমর্থক ছাড়াও এদিন বহু মানুষ রবীন্দ্র সদনে এসে সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে শেষ বিদায় জানান। শেষ কৃত্য সম্পন্ন হওয়া পর্যন্ত গোটা বিষয়টি তদারকি করেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, ফিরহাদ হাকিম, মালা রায়রা। দুপুর দুটোর পর রবীন্দ্র সদন থেকে মরদেহ নিয়ে আসা হয় বিধানসভায় সেখানে তাকে শ্রদ্ধা জানান স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। আড়াইটার পর সুব্রত মুখোপাধ্যায় প্রিয় ক্লাব একডালিয়া এভারগ্রিনের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় শববাহি শকট।

- Advertisement -

এভারগ্রীন ক্লাবের সদস্য সহ এলাকার বহু মানুষ শেষ বারের জন্য সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে দেখতে হাজির হন। বেশ কিছুক্ষণ একডালিয়া এভারগ্রিন ক্লাবে তার মরদেহ রাখা হয়। এরপর গড়িয়াহাট থেকে পদযাত্রা করে কেওড়াতলা মহাশ্মশানের উদ্দেশ্যে রওনা দেওয়া হয়। অরূপ বিশ্বাস, ফিরহাদ হাকিম, বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়, মদন মিত্র,সুজিত বসু সহ তৃণমূল নেতা-কর্মী সুব্রত মুখোপাধ্যায় এর শেষ যাত্রায় সামিল হন। বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ তার মরদেহ পৌঁছয় কেওড়াতলা মহাশ্মশানে। মরদেহ কেওরাতলায় পৌঁছানোর আগেই শ্মশানে হাজির হন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনিও ফুলের মালা দিয়ে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানান। এরপর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গান স্যালুট দেওয়া হয়। পরিবারের সদস্যরা তাকে শেষবারের মতো বিদায় জানানোর পর বিকেল ৫ টা নাগাদ অন্তেষ্টির জন্য শ্মশানের ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয় বর্ষিয়ান নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মরদেহকে ।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here