কলকাতা পুরসভা ভোটে তৃণমূলের প্রকাশিত পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা

0

Last Updated on November 27, 2021 12:53 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। পুরভোটে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল তৃণমূল। বিধায়ক, সাংসদ হওয়ার পরেও পুরভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ফিরহাদ হাকিম, অতীন ঘোষ, দেবাশীষ কুমার, দেবব্রত মজুমদার সহ আরও ২ বিধায়ক। মোট ৬ জন বিধায়ক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার পাশাপাশি মালা রায় পুরভোটে প্রতিদ্বন্দিতা করবেন। অন্যদিকে তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেনকে প্রার্থী করা হয়নি। কলকাতা পুরসভার ১৪৪টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৮৭জনকে পুনরায় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে, যেখ ানে ৩৯ জনকে প্রার্থী করা হয়নি। অন্যদিকে ১৮টি আসন ছাড়া হয়েছে তৃণমূলের সঙ্গে জোটে থাকা অন্য রাজনৈতিক দলগুলিকে। ৫৫শতাংশ পুরুষ প্রার্থীর পাশাপাশি এবার প্রার্থী তালিকায় জায়গা পেয়েছে ৪৫ শতাংশ মহিলা প্রার্থী। ১৯ শতাংশ সিডিউল কাস্ট এবং ২৩ শতাংশ সংখ্যালঘু সম্প্রদায় (যার মধ্যে দু’জন খ্রিষ্টান) এর প্রতিনিধিরা প্রতিদ্বন্দিতা করবেন। উল্লেখযোগ্য ভাবে, ৩৯ জনকে প্রার্থী করা হয়নি এবার পুরভোটে। তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন রতন দে, রতন মালাকার, স্মিতা বক্সী, রতন দে,সুস্মিতা দাম। এবারের তালিকায় একাধিক নেতা মন্ত্রীর আত্মীয়-পরিজনদের টিকিট দেওয়া হচ্ছে।পুরভোটে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় জায়গা দেওয়া হয়েছে কম বয়সীদের। এবার টিকিট পেয়েছেন, মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের পুত্র সৌরভ বসু, তারক সিং এর পুত্র ও কন্যাকে, মন্ত্রী শশী পাঁজার কন্যা পূজা পাঁজা, বিধায়ক স্বর্ণ কমল সাহার পুত্র সন্দীপন সাহা। শান্তনু সেনকে টিকিট না দেওয়া হলো তার স্ত্রী কাকলী সেনকে টিকিট দেওয়া হচ্ছে। পুরভোটে তরুণদের আরো সামনে তুলে আনতেই এবার কমবয়সীদের টিকিট দেওয়া হচ্ছে। শুক্রবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার আগে কালীঘাটের বাসভবনে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসেন মমতা।

- Advertisement -

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক, ফিরহাদ হাকিম, পার্থ চট্টোপাধ্যায় সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। পরে তৃণমূলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ক্ষ্মআমাদের প্রার্থী তালিকায় যথাযথভাবে যেভাবে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে সম্মান জানানো হয়েছে, একই রকমভাবে মহিলাদেরও উপস্থিতির মাধ্যমে সম্মান জানানো হয়েছে। এদিন বৈঠক শেষে ফিরহাদ বলেন, ক্ষুদল যা দায়িত্ব দেবে বরাবরের মতো তাই মেনে চলব।ক্ষ্মএক ধাপ এগিয়ে অতীন ঘোষ বলেন, ক্ষ্মপুরসভার কাজ করতে আমার অনেক বেশি ভালো লাগে, এটা আমার ব্যক্তিগত ধারণা। 9 দলের দায়িত্ব মাথা পেতে নেব। প্রসঙ্গত বরাবরের মতো এবারের তৃণমূলের পুরভোটের প্রার্থীর ভোটের তালিকায় স্বচ্ছতাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। স্বচ্ছ ভাবমূর্তি রয়েছে, কর্মঠ, অল্প বয়সের প্রার্থীদেরকে বিশেষভাবে জোর দেওয়া হয়েছে তালিকা বাছাইয়ের ক্ষেত্রে। যে সকল নেতৃত্ব আপাতত পুরভোটের থেকে সরিয়ে রাখা হয়েছে তাদের অন্য কাজে ব্যবহার করবে দল বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here