উপনির্বাচনে ভাজপার ভরাডুবি তৃণমূল ৪’এ ৪, উত্তরবঙ্গে ভাজপার স্বঘোষিত দুর্গ ভেঙে চৌচির

0
511

৩৬৫ দিন। ৪ কেন্দ্রে উপনির্বাচনে ভাজপাকে গুনে গুনে চার গোল দিল তৃণমূল। দিনহাটা,গোসাবা, শান্তিপুর,খড়দহ – ৪ আসনে রেকর্ড ভোটে জয় তৃণমূল প্রার্থীদের। গড়ে ৭৬ শতাংশের বেশি ভোট পেল তৃণমূল। অনেক পিছনে ভাজপা। ছবিতেই নেই বামেরা। একমাত্র খড়দহ আসনে কোনক্রমে খড়কুটোর মতো ভেসে থাকার চেষ্টা সিপিএমের। দক্ষিণ হাতছাড়া হয়েছিল আগেই এবার ভাজপার উত্তরের দুর্গ ও ভেঙে চুরমার হয়ে গেল। তৃণমূলের দাপটে দিনহাটায় দাঁড়াতেই পারলোনা ভাজপা। খোলামকুচির মত কার্যত উড়ে গেল গেরুয়া শিবির। মাত্র ৫৭ ভোটে হারা দিনহাটা আসন তৃণমূল প্রার্থী উদয়ন গুহ জিতলেন ১,৬৩,০০৫ ভোটে। জামানত বাজেয়াপ্ত’র মত অবস্থা হয়ে দাঁড়াল ভাজপা প্রার্থী অশোক মণ্ডলের। সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ হল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের ছেড়ে যাওয়া আসনে বিজেপি তো হারলোই এমনকি নিশীথের বুথে ১০০ ভোট ও পেল না ভাজপা। সেখানেও অনেক এগিয়ে উদয়ন। দিনহাটায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামানিকের বুথে(২৩৪) বিজেপি ২৭৫ ভোটে পরাজিত হয়েছে। বিজেপি প্রার্থী অশোক মন্ডল নিজের বুথে (২৯১) পরাজিত হয়েছেন ৩০৫ ভোটে। রেকর্ড ভোটে জিতে চওড়া হাসি উদয়নের মুখে। তিনি বলেন, ‘ ৫৬ ভোটে জিতে নিশীথ প্রামাণিক নিজেকে ভগবান ভাবতে শুরু করেছিল। দিনহাটার মানুষ তাকে মাটিতে টেনে নামিয়ে আনলো। এখন আর ওর পায়ের তলায় মাটি নেই। মমতা বলেছিলেন রেকর্ড ভোটে জিততে হবে। আমি রেকর্ড ভোটে জিতে দেখিয়ে দিয়েছি। ২০২৪ এ ভাজপা কে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না।’

অন্যদিকে দক্ষিণ ২৪ পরগনা গোসাবা তৃণমূলের জয়ের ব্যবধান সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এই কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মন্ডল ১ লক্ষ ৪১ হাজার ৮৯৩ ভোটে জয়ী হয়েছেন। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হলো এই কেন্দ্রে মোট ভোট পড়েছে ১ লক্ষ ৬০ হাজার দুশো একত্রিশ। ভাজপা প্রার্থী পেয়েছেন মাত্র ১৮ হাজার ৩৩৪ ভোট অর্থাৎ প্রায় ৪৪ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী তৃণমূল এই কেন্দ্রে। উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহ আসনেও রেকর্ড ভোটের ব্যবধানে জয়ী বর্ষীয়ান তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। তাঁর জয়ের ব্যবধান ৯৩ হাজার ৮৩৮ ভোট। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল এই কেন্দ্রে বেশ কয়েক রাউন্ড সিপিএম প্রার্থী দ্বিতীয় স্থানে ছিল ভাজপা এখানে তৃতীয় স্থানে নেমে যায় পরে অবশ্য ভাজপা দ্বিতীয় স্থানে শেষ করে। জয় নিশ্চিত হওয়ার পর শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, দলের প্রতিটি নেতাকর্মী কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করেছেন। প্রত্যেককে ধন্যবাদ। এই জয় মা মাটি মানুষের জয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের জয়।দমদমের তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় বলেন বাংলা জুড়ে এখন মমতা ওয়েব চলছে মানুষ ঢেলে তৃণমূলকে আশীর্বাদ করেছেন। নদীয়ার শান্তিপুর আসন যে ভাজপার দখলে ছিল সেখানেও তৃণমূলের দাপট তাৎপর্যপূর্ণভাবে এখানে মতুয়া ভোট গতবার বিজেপির দিকে গেলেও এবার তারা তৃণমূলকে সমর্থন করেছেন শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তৃণমূল প্রার্থী এখানে ৫৪ হাজারেরও বেশি ভোটে বিজেপির থেকে এগিয়ে রয়েছেন।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here