সম্প্রতি পাহাড়ে এমন দুর্ঘটনা হয়নি, গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা টয় ট্রেনের

0

Last Updated on September 22, 2021 1:11 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন।‌ দূর্ঘটনার সম্মুখীন হেরিটেজ টয়ট্রেন। চার চাকা গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ চলন্ত খেলনা গাড়ির। মঙ্গলবার বিকেল ৫টা নাগাদ পাহাড় থেকে যাত্রী নিয়ে এনজেপি ফেরার পথে শিলিগুড়ির অদূরে পঞ্চনই সেতু সংলগ্ন এলাকায় ২ ফিট গেজ রেল লাইন ধরে পারাপারের চেষ্টা করছিল একটি চার চাকার বোলেরো গাড়ি। সেসময় ন্যারোগেজ লাইনে উল্টোদিক থেকে চলে আসছিল খেলনা গাড়িটি। যার জেরে বোলেরো গাড়িটির সঙ্গে মুখোমুখি সজোরে সঙ্ঘর্ষ হয় খেলনা ট্রেনের। ঘটনার পরই ঘটনাস্থলে লাইনের ওপর বোলেরো গাড়িটিকে দাঁড় করিয়ে পালিয়ে যায় গাড়ির চালক।সংর্ষের জেরে খেলনা ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়ে বন্ধ হয়ে যায়। লাইনচ্যুত হয়ে যায় টয়ট্রেন। যদিও ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর মেলেনি। পর্যটকদের মাঝপথে চরম বিভ্রাটের সম্মুখীন হতে হয়। প্রায় ঘন্টা খানেক বাদে তিনধরিয়া থেকে একটি ব্রেক ডাউন ভ্যান ও অধিকারীকেরা এসে পৌঁছায় ঘটনাস্থলে। স্থানীয়রা জানায় টয়ট্রেনটি আসছিল সেসময় উল্টো দিকের একটি সরু রাস্তা থেকে বোলেরো গাড়িটি বেড়িয়ে এসে মুখ্য সড়ক ধরে সোজা লাইনে পারাপারের চেষ্টা করে। উল্টোদিকের খেলনা ট্রেনের গতি বুঝতে উঠতে পারেনি গাড়ির চালক। টয়ট্রেন চালক গাড়িটিকে পারপার করতে দেখেও আগাম সতর্কতা হিসেবে ট্রেনটি সাইরেন দেয়নি। যার জেরেই এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

- Advertisement -

তবে গাড়িটিতে যাত্রী না থাকায় বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা মিলেছে। এ বিষয়ে দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ের ডিরেক্টর জানান চলন্ত টয়ট্রেনকে দেখেও চারচাকা গাড়িটি লাইন পারাপারের চেষ্টা করে। ঘটনার জেরে টয় ট্রেনের ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে লাইন চুত্য হয়ে পড়ে। কিছুক্ষনের মধ্যেই তিনধরিয়া থেকে ব্রেকডাউন ভ্যান পাঠিয়ে ট্রেনটিকে লাইনে ফেরানো হয়। তবে ট্রেনে থাকা পর্যটকদের রেলের তরফে বিকল্প ব্যবস্থা নিয়ে গাড়িতে করে সড়কপথে এনজেপি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশ গাড়ি ও গাড়িতে থাকা যাবতীয় নথিপত্র বাজেয়াপ্ত করেছে। রেলের তরফে লাইন পারপার বিরোধী নির্দিষ্ট আইনে অভিযোগ করা হয়েছে। ট্রেনে নয়জন যাত্রী ছিলেন বলেও জানা গিয়েছে। তবে হেরিটেজ লাইনের ওপর কখনও মোটর বাইক, ঠেলা গাড়ি দাড় করিয়ে রাখার ঘটনা নতুন নয়। কয়েক বছর আগে ট্র্যাকের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে ইউনেস্কো এধরনের বিষয়ের ওপর কড়াকড়ি ভূমিকা নেওয়ার কথা জানায় রেলকে। সেসময় সচেতনতা ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা কিছু আরোপ হলেও ফের সময়ের ব্যবধান বাড়তেই একই ছবি নজরে আসে। এ বিষয়ে উত্তরপূর্ব রেলের কার্টিহার ডিভিশনের ডিআরএম জানান আমরা সচেতনতার প্রচার করে থাকি। তবে এধরনের ঘটনা আগে ঘটেনি।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here