কাবুল বিমানবন্দরে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ,শিশু সহ নিহত অন্তত ১৩

0
280

খবরের সূত্র: আল জাজিরা

- Advertisement -

৩৬৫ দিন। হাই এলার্ট আগেই ছিল। সেই আশঙ্কাকে সত্যি করেই একাধিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল কাবুল বিমানবন্দর লাগোয়া চত্বর। পরপর আত্মঘাতী বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। পেন্টাগন সূত্রের খবর, কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে হামলা চালিয়েছে আইসিস।
জানা গিয়েছে, বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে আছে একাধিক শিশুও। আহত হয়েছে কয়েকজন তালিবান । পেন্টাগন থেকে জানানো হয়েছে আহতদের মধ্যে মার্কিন সেনার সদস্যরাও আছেন। হতাহতের সংখ্যা স্পষ্ট না হলেও কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
তবে হতাহতের সংখ্যা নিয়ে আমেরিকার তরফে সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি। পেন্টাগনের প্রেস সেক্রেটারি জন কিরবি টুইটারে বলেছেন, একটি জঙ্গি হামলার কারণে অ্যাবে গেটে (বিমানবন্দরের মূল গেট) বিস্ফোরণ হয়েছে। তার জেরে একাধিক মার্কিন নাগরিক এবং সাধারণ নাগরিক হতাহত হয়েছেন। পাশাপাশি জানা গিয়েছে, যে ব্যারন হোটেলের কাছে বা তার আশেপাশে আরও একটি বিস্ফোরণ হয়েছে। হোটেল টি অ্যাবে গেটের কাছেই। বিমানবন্দরের অ্যাবে গেটে
আফগানিস্তান ছেড়ে যাওয়ার জন্য গত ১২ দিন ধরে হাজার-হাজার মানুষ জড়ো হয়ে আছেন। পাশাপাশি বিমানবন্দরের গেট লাগোয়া ব্যারন হোটেলের কাছে বিস্ফোরণ হয়েছে। যেখানে বিভিন্ন দেশের নাগরিকরা থাকছেন। বেশিরভাগই বিদেশি রাষ্ট্র দূতদের রাখা হয়েছে এই হোটেলে।
প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই জি-৭ বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জানিয়েছিলেন, কাবুল বিমানবন্দরের কাছে হামলা করতে পারে আইসিস। তারা নাকি তালিবান বিরোধী। গোলমাল পাকাবার জন্য তারা হামলার চেষ্টা করছে। এরপরই অ্যামেরিকা, ব্রিটেন ও অস্ট্রেলিয়া তাদের নাগরিকদের কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে সম্ভাব্য সন্ত্রাসবাদি হামলা নিয়ে সাবধান করে দিয়েছে। তাদের বলা হয়েছে, তারা যেন কাবুল বিমানবন্দর আপাতত এড়িয়ে চলেন।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here