দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইবির হানা বাজারে

0

Last Updated on September 3, 2020 5:41 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। কয়েকদিন ধরেই অগ্নিমূল্য বাজার। হাত পড়েছে মধ্যবিত্তের মাথায়। তবে এই দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে আগেই অনুরোধ করেছিল নবান্ন। যাতে করোনা আবহের মধ্য কোনও অসুবিধে না হয়। তবে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর জন্য তা সম্ভব হচ্ছিল না। তবে এরই মধ্যে স্বস্তির খবর আলু সহ কয়েকটি সবজির দাম বেশ কমেছে। বৃহস্পতিবার জ্যোতির আলুর দাম ৩০(ছিল ৩২), পটল প্রতি কেজি ৪০( ছিল ৫০), ঝিঙে ৩৫ (ছিল ৫০), তবে এছাড়া অন্যান্য সবজির দাম একই আছে। বেগুন ৫০ টাকা, ভেন্ডি ৪০, চিচিঙ্গা ২৫, শশা ৩০, করলা ৪০টাকা, কচু ৩০টাকা, কুমড়ো ৫০ টাকা বরবটি ৪০। তবে দাম বেড়েছে ডিমের। প্রতি পিসের দাম ছিল ৫টাকা তা বেড়ে হয়েছে পনে ৬টাকা। তারই সঙ্গে সামান্য দাম বেড়েছে চিকনেরও। কলকাতার বাজারে মুরগির মাংসের দাম ১৭০ টাকা প্রতি কেজি। খাসির মাংসের দাম ও একই আছে (৭০০টাকা প্রতি কেজি) বলেই জানা গেছে। তাছাড়াও এদিন সকাল থেকে শহরের বিভিন্ন বাজারে চলেছে ইবির অভিযান। দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতেই এই হানা। ৪টি টিমে এই অভিযান হয়। টিম ১ গিয়েছিল কোলে মার্কেট,বৈঠক খানা বাজারে, পোসতা বাজার, কলেজ স্ট্রিট, নিউ মার্কেট,বউবাজার সহ মধ্যে কলকাতার অনন্যা বাজার। টিম ২ উত্তর কলকাতার বিভিন্ন বাজারে। আর দুটি টিম গিয়েছিল দক্ষিণ কলকাতার অন্যান্য বাজারে। কয়েকদিন ধরেই আলুর দাম ছিল আকাশ ছোঁয়া। তাতে নাকাল হয়েছে শহরবাসী। অফিস থেকে ফেরার সময় কিংবা কাজ থেকে বাড়ির ফেরার সময় একবারে ৭দিনের বাজার অনেকেই করে নেন। তবে সেই দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতেই এদিন শহরের বাজারে হানা দেন ইবি। এমনই নির্দেশ দেওয়া বিক্রেতাদেরও।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here