ফ্যাশন ডিজাইনার শর্বরী দত্তের রহস্যজনক মৃত্যু

0

Last Updated on September 18, 2020 4:50 PM by Khabar365Din

৩৬৫দিন। প্রয়াত হলেন প্রখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার শর্বরী দত্ত। বয়স হয়েছিল৬৩।
বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ তাঁর ব্রড স্ট্রিটের বাড়ির শৌচাগার থেকে দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তবে মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হওয়ায় দেহ ময়নাতদন্তের জন্য এনআরএস হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে লালবাজারের হোমিসাইড শাখা। শর্বরী দত্তের ছেলে অমলীন দত্ত জানান, বুধবার রাতে তাঁদের সঙ্গে ডিনারে শেষ দেখা হয়। নিজের খাওয়া নিয়ে তিনি রুমে চলে গিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার সারাদিন তাঁকে ফোনেও পাওয়া যায় নি। কোনও খবর না পাওয়ায় তাঁরা মনে করেছিলেন কোনও কাজে হয়তো বাইরে গিয়েছেন। নিজের বাড়িতে পুত্র ও পুত্রবধূর সঙ্গে থাকতেন শর্বরী।
পরিবারের দাবি, শর্বরী দত্তের শারীরিক অসুস্থতা সেভাবে কিছু ছিল না। সম্ভবত বাথরুমে পড়ে গিয়ে হার্ট অ্যাটাকেই মারা গেছেন তিনি। পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত করে দেখছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না এলে মৃত্যুর কারণ নিয়ে কিছুই বলা যাবে না বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে পুলিশ সূত্রে খবর,বাথরুমে তার দেহের পাশে রক্ত পড়ে ছিল। কানের পাশে ও গোড়ালিতে একটি ক্ষতচিহ্নও রয়েছে। এখানেই খানিকটা সন্দেহ তৈরি হয়েছে তদন্তকারীদের।
নয়ের দশকের মাঝামাঝি সময়ে ফ্যাশন দুনিয়ায় অন্য ধারা নিয়ে কাজ শুরু করেন শর্বরী দত্ত। মূলত পুরুষদের ফ্যাশন নিয়ে অভিনব ভাবনায় কাজ শুরু করেন তিনি। ধুতির ফ্যাশনে সারা দুনিয়া এক নামে চিনত তাঁকে। রঙিন ধুতির পাড়ে কাঁথা স্টিচ বা রাজস্থানী প্রিন্ট– এসবের সৃষ্টি ছিল তাঁরই। বিভিন্ন দেশের লোক সংস্কৃতিকে পোশাকে ফুটিয়ে তুলতেন শর্বরী। তার মধ্যে অন্যতম ছিল মিশরীয় সভ্যতা। ২০০৮ সাল নাগাদ তাঁর ধুতি পাঞ্জাবির উপর ইজিপ্ট ঘরানার কারুকার্য করে আন্তর্জাতিক পুরস্কারও জিতেছিলেন তিনি।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here