মধ্যরাতে অতিরিক্ত গতিই খালে ফেলে দিল গাড়িকে, মৃত ১

0

Last Updated on September 7, 2020 7:35 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। বিধাননগর। সোমবার মধ্য রাতে ১০০ কিলোমিটারের বেশী গতিতে গাড়ি নয়ে যেতে গিয়ে খালে পড়ে মারা গেলেন এক গাড়ির চালক। ঘটনাটি ঘটেছে ভি আই পি রোডের কেষ্টপুরে। এদিন রাত দেড়টা নাগাদ ডব্লিউ বি ৩৫ ২০৭৩ নম্বরে গাড়িতে এক যাত্রীকে বসিয়ে উল্টোডাঙার দিক থেকে এয়ারপোর্টের দিকে যাচ্ছিলেন ৩২ বছর বয়সী রতন দাস। পেশায় তিনি একটি বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স চালক। কিন্তু রবিবারে ছুটির দিনে অতিরিক্ত আয়ের জন্য বেসরকারি গাড়িতে চালক হিসাবে কাজ করে আয় করেন। রাতে যখন কেষ্টপুরে গাড়িটি নিয়ে আসে রতন তখন রোড ডাইভারসনের কাছে এসে হঠাৎই নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেলে সে। ফলে গাড়িটি খালের ধারে লোহার রেলিং ভেঙে দুটি সিমেন্টের গার্ড্রেল ভেঙে সোজা উড়ে গিয়ে মধ্যে জলের মাঝখানে। গাড়িতে বসে থাকা এক যাত্রী দ্রুত গাড়ির দরজা খুলে বেরিয়ে এসে চিৎকার করতে থাকেন। এতেই ছুটে আসেন এলাকার বাসিন্দারা। তারাই ঘটনাটি দেখেন যে গাড়িটি জলে ঢুবে যাচ্ছে। দ্রুত খবর দেওয়া হয় বাগুইআটি থানা এবং ট্রাফিকের পুলিশ কর্মিদের কাছে। তারাও ওই রাতেই দ্রুত ব্রেকডাউন ক্রেন নিয়ে হাজির হয়ে যান ঘটনাস্থলেই। ট্রাফিকেত গ্রীন পুলিশ এবং ক্রেনের কর্মিরাই খালের জলে নেমে গাড়ির ভিতর থেকে চালককে বার করার চেষ্টা করেন। কিন্তু দূর্ঘটনার কারণে দরজা লক হয়ে যায়। ফলে দ্রুত গাড়িটিকে জল থেকে বের করে নিয়ে আসার কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু তাতেই বাঁচানো যায়নি গাড়ির চালক রতন দাসকে। তাকে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষনা করেন। এদিকে এদিনই রাত একটা নাগাদ কেষ্টপুরে উল্টোডাঙাগামী রাস্তাতেই একটি পণ্যবাহী ছোট গাড়ি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার ধারে দাড়িয়ে থাকা অপর একটি গাড়ির পিছনে ধাক্কা মারে। ফলে গাড়ির চালক গুরুতর আহত হন। তাকে দ্রুত আর জি কর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় চিকিৎসার জন্য। সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন আছেন।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here