বুস্টার ডোজ নিতে শহরবাসীর অনীহা,ডোর টু ডোর প্রচারে পুরকর্মীরা

0

Last Updated on July 7, 2022 6:36 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫ দিন।করোনার প্রতিশেধক নিতে আগেও অনীহা ছিল অনেকেরই।তবে প্রয়োজন বুঝে প্রথম এবং দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন তাঁরা।তবে এবার বুস্টার ডোজ নিয়ে অনীহা দেখা গিয়েছে তাঁদের মধ্যে।বুস্টার ডোজ ভ্যাকসিন সংখ্যা বাড়াতে এবার উদ্যোগী হয়েছে কলকাতা পুরসভা।বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা বলেই জানা গিয়েছে।

ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির বুস্টার ডোজ না নেওয়া থাকলে নাম এবং ফোন নাম্বার সহ তথ্য সংগ্রহ করবেন।এরপর সেই নাম গোপন নাম্বারে যোগাযোগ করবেন পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা। সচেতনতা বাড়িয়ে ভ্যাকসিনে আগ্রহী করছেন বলেই জানা গিয়েছে।এছাড়াও কাউন্সিলরদের মাধ্যমে অ্যাপ্রোচ করা হবে ভ্যাকসিন না নেওয়া ব্যাক্তিদের।প্রতিটি ওয়ার্ডে মাইকের মাধ্যমেও সচেতনতা প্রচার চলবে।

কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, ২১ মার্চ ২০২২ থেকে শুরু হয় প্রিকোশনারি ডোজ বা বুষ্টার ডোজ দেওয়ার কাজ।এখনও পর্যন্ত বুস্টার ডোজ নিয়েছেন চার লক্ষ ৩ হাজার ৮৪৪ জন।তার মধ্য ষাটোর্ধ্ব বাসিন্দা ২ লক্ষ ৮৫ হাজার ৯৪ জন।স্বাস্থ্য কর্মী ৫৩ হাজার ৫৬জন।ফ্রন্ট লাইন ওয়ার্কার ৬৫ হাজার ৬৯৪জন।একটা সময় বুস্টার ডোজ নেওয়ার জন্য অনেকেই প্রবল আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন।অনেকই সেই সময় লাইনে দাঁড়িয়ে বুস্টার নিয়েছিলেন।

কোথায়,কখন বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে,তা নিয়ে খোঁজ-খবর রাখছিলেন অনেকেই।তবে সেসব এখন অতীত।এই বুস্টার ভ্যাকসিন নিয়ে বসে আছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।আর নেওয়ার লোক নেই।এই ছবি এখন কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য কেন্দ্রে।অথচ একটা সময় এই ভ্যাকসিন নিতেই লাইনের পর লাইনে দীর্ঘক্ষণের প্রতীক্ষা।তবে এই অনীহা কাটাতেই বাড়ি বাড়ি যাচ্ছে কলকাতা পুরসভা।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here