ঝকঝকে হেরিটেজ বাড়িতে জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের অফিস,ভেতরে রয়েছে কলকাতার প্রাচীন ইতিহাসের মিউজিয়াম

0

Last Updated on August 17, 2022 8:51 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫ দিন।শতাব্দীপ্রাচীন সুবিশাল বাড়ি।শোভাবাজার স্ট্রিটে রায় বাড়ি হিসেবেই পরিচিত।বাইরে থেকে দেখতে একেবারে ঝকঝকে।মনেই হচ্ছে না বহুবছর আগের বাড়ি।যা বর্তমানে কলকাতা পুলিশের জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের সদর দফতর।দিনরাত পুলিশের আনাগোনা লেগেই থাকে ওই বাড়িতে।তবে ঠিক অন্য থানার মতো নয়।ভেতরে ঢুকলেই মনে হবে যেনও কোনও ইতিহাসের পাতা ঘাটছি।ঠিক তেমনই অবস্থা জোড়া বাগান ট্রাফিক গার্ডের অফিস।

ঠিক পুলিশের বসার জায়গায় পরেই রয়েছে মিউজিয়াম।সেখানেই রয়েছে কলকাতার ইতিহাসের ঝলক।ছবি দিয়েই রয়েছে তার সমস্ত বিবরণ।যেখানে রয়েছে রাজা নবকৃষ দেব এর বাড়ি এবং নবকৃষ্ণ দেব স্ট্রিট এর ইতিহাস।পুবে লাহা কলোনির মাঠ থেকে পশ্চিমে যতীন্দ্রমোহন অ্যাভিনিউ-লাল মন্দির। উত্তর কলকাতা তথা সারা কলকাতার সবচেয়ে পুরনো পাড়া।লোকে আগে বলত ‘রাজার রাস্তা’। আড়াইশো বছরেরও আগে রাজা নবকৃষ্ণ দেব ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কাছ থেকে সুতানুটি অঞ্চল কয়েকটি গ্রামের বিনিময়ে কিনে নেন।

তখন থেকেই এই রাস্তায় জনবসতি শুরু হয়। আমরা রাজা নবকৃষ্ণ দেবের বংশধরেরা সেই তখন থেকেই রাজা নবকৃষ্ণ স্ট্রিটের দু’ধারে বসবাস করছে।এমন ইতিহাসের কথাও রয়েছে।সেখানে রয়েছে রাজা জানকি নাথ রায়ের এই বাড়ির ইতিহাসও।এই ঐতিহ্যবাহী বাড়ি সম্পর্কে জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের ওসি জানান,নকশাল এর আন্দোলনের সময় থেকে এই বাড়ি প্রথমে কেন্দ্রীয় সেনাবাহিনীর অধীনে ছিল।

তার ঠিক ৪ থেকে ৫ বছর পরে কলকাতা পুলিশের অধীনে আসে।তখন থেকেই এখানে যাবতীয় সংস্কারের কাজ কলকাতা পুলিশই করে।শুধু তাই নয়,ওখানে নানা রকম অনুষ্ঠানও হয়ে থাকে।যেমন বিশেষ করে ছোট বাচ্চাদের জন্য।পুরোনো বাড়িটি এখন শুধু ইতিহাসে নয় সেখানে জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের একটি আস্ত অফিস ওখানে রয়েছে।যেখান থেকেই যাবতীয় কাজ কর্ম হয়।রবিবার এই বাড়িতেই ঢুকে যা নজরে পড়ল তা হল,প্রাচীন ভাস্কর্য।যা এখনও অমলীন।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here