বিদায় চাণক্য : প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়

0

Last Updated on August 31, 2020 2:57 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন: নয়াদিল্লি। প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ভারতরত্ন প্রণব মুখোপাধ্যায়। সোমবার বিকেল ৫ টা ৪৬ মিনিটে তাঁর প্রয়াণের খবর জানিয়েছেন ছেলে ও প্রাক্তন সাংসদ অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। গত ৯ অগাস্ট বাড়ির শৌচাগারে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তারপর থেকেই দিল্লির সেনা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। স্নায়ুঘটিত সমস্যা দেখা দেওয়ায় গত ১০ অগাস্ট তাঁর মাথায় অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। ১৩ অগাস্ট থেকে কোমায় ছিলেন তিনি। অস্ত্রোপচারের আগে তাঁর শরীরে কোভিড ১৯ সংক্রমণও ধরা পড়েছিল। অস্ত্রোপচারের আগে, নিজের করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবর টুইট করে জানিয়ে ছিলেন তিনিই। সেটাই ছিল প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষ টুইট।মৃত্যুকালে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। আগামীকাল প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির জীবনাবসানে সাত দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। পাশাপাশি আগামীকাল মঙ্গলবার রাজ্যে সব সরকারি প্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকার আগামীকাল ১ সেপ্টেম্বর রাজ্যে পুলিশ দিবস ঘোষণা করেছে। রবিবার স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, পুলিশ দিবসের অনুষ্ঠান আগামী ৮ সেপ্টেম্বর পালন করা হবে। প্রসঙ্গত, ফুসফুসের সংক্রমণ ছাড়াও কিডনি সমস্যার চিকিৎসাও চলছিল প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের। রবিবার হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছিল, যে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। তাঁর কিডনিও উন্নতি করেছে। তবে সোমবার সকলে ফের তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। সকালের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্যে দিল্লির সেনার হাসপাতাল জানায়, এখনও গভীর কোমাতেই আচ্ছন্ন রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। এরপরে এদিন বিকেলে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রয়াত হন। এদিন বিকেলে, টুইটারে ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় জানান, গভীর বেদনার সঙ্গে জানাচ্ছি আমার বাবা প্রণব মুখোপাধ্যায়ের জীবনাবসান হয়েছে। ডাক্তারেরা অনেক চেষ্টা করেছেন, দেশের মানুষ প্রার্থনা করেছেন, সকলকে ধন্যবাদ। রাইসিনা হিলসে একমাত্র বাঙালি রাষ্ট্রপতি ছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। রাজনৈতিক আঙিনায় যেভাবে ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট করেছেন, ভারতীয় রাজনীতিতে তাকে চাণক্য উপাধি দেওয়া হয়। দেশের অর্থ, প্রতিরক্ষা, বিদেশ মন্ত্রীর দায়িত্ব সামাল দিয়েছেন তিনি। লোকসভা ও রাজ্যসভার দলনেতা, যোজনা কমিশনের উপাধ্যক্ষর পদের দায়িত্বে ছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির প্রয়াণে দেশের সকল বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ শোক প্রকাশ করেছেন। শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। টুইটে তিনি লিখেছেন, ওঁর প্রয়াণ এক যুগের সমাপ্তি। রাষ্ট্রপতি ভবনকে সাধারণের জন্য খুলে দিয়েছিলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শোকপ্রকাশ করে জানিয়েছেন, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে জাতীয় জীবনে এক অপূরণীয় শূন্যতার সৃষ্টি হল। বাগ্মী ও সুপণ্ডিত প্রণববাবুর রচিত বহু গ্রন্থে রয়েছে তাঁর বৈদগ্ধ্যের স্বাক্ষর। দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন
প্রণববাবু ভারতের রাজনীতির উজ্জ্বল রত্ন ছিলেন। ভারতরত্ন উপাধির বাইরেও এই ছিল তাঁর সবচেয়ে বড় পরিচিতি। ভারতীয় রাজনীতির এবং বিশেষত সংসদীয় ক্ষেত্রে তাঁর ভূমিকা ছিল অগ্রজ চিন্তকের। ব্যক্তিগতভাবে প্রণববাবু আমাকে অত্যন্ত স্নেহ করতেন এবং বিভিন্ন সময়ে আমি তাঁর ঘনিষ্ঠ ও মূল্যবান উপদেশ পেয়েছি। তিনি আমার জীবনে অভিভাবকতুল্য ছিলেন। আমি তাঁর পুত্র, কন্যা, পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শোক জ্ঞাপন করেন।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here