ভাজপা শাসিত মধ‍্যপ্রদেশে আদিবাসী নির্যাতনের ভয়ঙ্কর ছবি। চাষের জমিতে জীবন্ত জ্বালিয়ে দেওয়া হল আদিবাসী মহিলাকে

0

Last Updated on July 5, 2022 6:16 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫ দিন। দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করে যখন আদিবাসী প্রীতি দেখাতে মরিয়া ভাজপা তখন ভাজপা শাসিত মধ‍্যপ্রদেশে আদিবাসী নির্যাতনের ভয়ঙ্কর ছবি। চাষের জমিতে জীবন্ত জ্বালিয়ে দেওয়া হল আদিবাসী মহিলাকে। মৃত‍্যু যন্ত্রনায় যখন ওই মহিলা ছটপট করছেন তখন ভিডিও তুলে তা সোস‍্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করল অভিযুক্তরা।

গোটা ঘটনায় তোলপাড় পড়ে গিয়েছে মধ‍্যপ্রদেশ জুড়ে। প্রশ্ন উঠছে রাজ‍্যের নিরাপত্তা ব‍্যবস্থা নিয়ে। মৃত মহিলার পরিবারের অভিযোগ, ২৩ জুন তিন অভিযুক্ত হনুমত, শ্যাম কিরার নামে স্থানীয় থানায় অভিযোগ জানানো।হলেও এফ আই আর পর্যন্ত নেওয়া হয়নি। মহিলাকে কোনও রকম নিরাপত্তা দেওয়া হয়নি।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মধ্যপ্রদেশে গুণা জেলায় এক আদিবাসী মহিলার গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন তিন জন। আগুনে পোড়ার ছবি ভিডিও করা হয়। মহিলার স্বামী অর্জুন সাহারিয়া আর্তনাদ শুনে ছুটে গিয়ে দেখেন অগ্নিদগ্ধ হয়ে ছটপট করছেন তাঁর স্ত্রী। ট্রাক্টরে পালাচ্ছেন তিন অভিযুক্ত। এরপর আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই আদিবাসী মহিলাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

পুলিশ আধিকারিক পঙ্কজ শ্রীবাস্তব জানান, ৬ বিঘা জমি নিয়ে ওই মহিলার পরিবারের সঙ্গে স্থানীয় কয়েকজনের বিবাদ চলছিল দীর্ঘদিন ধরে। তার জেরেই এই খুন বলে প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে। তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যদিও কেন প্রাণহানীর আশঙ্কা প্রকাশ করার পরেও স্থানীয় থানা কোনও ব‍্যবস্থা নিল না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

মধ্যপ্রদেশের বিজেপি সরকারকে আক্রমন করে কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ বলেন, ‘একটা দল দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করেছে। সেই দলের শাসনে থাকা রাজ্যেই আদিবাসী মহিলার উপর নির্মম অত্যাচার করা হল। লজ্জার ব্যাপার।’

অনেকে প্রশ্ন তুলছেন, যে ভাবে উত্তরপ্রদেশ, মধ‍্যপ্রদেশ, কর্ণাটকের মত রাজ‍্যে আদিবাসী, দলিতদের ওপর লাগাতার অত‍্যাচার চলছে তার পরেও কেন চুপ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। কেন অমিত শাহের দফতর রিপোর্ট তলব করছে না, কেন ভাজপা ফ‍্যাক্ট ফাইনডিং টিম পাঠাচ্ছে না। ভাজপা শাসিত রাজ‍্য হলেই কি সাত খুন মাপ !

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here