রাজা রামমােহনকে দালাল বলায় নাগেশ্বর রাও’এর বিরুদ্ধে চন্দননগরে এফআইআর

0

Last Updated on June 7, 2021 9:13 PM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। সিবিআইয়ের প্রাক্তন অধিকর্তা নাগেশ্বর রাও সম্প্রতি বাংলার নবজাগরণের পথিকৃৎ রাজা রামমােহন রায়কে ব্রিটিশ ও খ্রিষ্টানদের দালাল এবং নকশালপন্থী বলে টুইট করেন। এই ঘৃণ্য মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলা পক্ষ সংগঠনের পক্ষ থেকে মনন মন্ডল চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটে ‘একজন বাঙালি ও ভারতীয় নাগরিক হিসেবে জনসাধারণের মধ্যে রাজা রামমােহনের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানাের দায়ে এফআইআর দায়ের করেছেন। এফআইআরে নাগেশ্বরকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানানাে হয়েছে।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত সিপিএমের পলিটব্যুরাে সদস্য বৃন্দা কারাতও এই মন্তব্যের জেরে রাওকে গ্রেফতার করার দাবি জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত গত ২৩ মে দুপুর ও সন্ধ্যার বুলেটিনে রাজা রামমােহন রায় সম্পর্কে নাগেশ্বর রায়ের এই অপমানজনক টুইট প্রথম প্রকাশ করে ৩৬৫ দিন। ওই দিনই বিকেলে বাংলা পক্ষ চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটে এফআইআর দায়ের করে। এফআইআর’এ বলা হয়েছে, নাগেশ্বর রাও তার টুইটে বলেছেন, রামমােহন রায় ছিলেন আধুনিক যুগের হিন্দু সভ্যতার ধ্বংসের কারণ। বাংলার নবজাগরণের পথিকৃৎ রাজা রামমােহন রায়ের বিরুদ্ধে এই ধরণের ঘূণ্য মন্তব্য তীব্র আপত্তিকর।

সতীদাহ প্রথা রদ করার সঙ্গে সঙ্গে তৎকালীন সমাজের বহু বিবাহ এবং বর্ণভেদ প্রথার বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়েছিলেন, নারী-পুরুষ সমান অধিকার, নারী শিক্ষার বিস্তারে তার অবদান উল্লেখযােগ্য। উনবিংশ শতাব্দীতে রামমােহন যে মুক্ত চিন্তা চেতনার আলাে জ্বালিয়েছিলেন সেই আলােতেই ভারত নবজাগরণের পথে ত্বরান্বিত হয়েছিল। নাগেশ্বর রাও এর মত একজন অবসরপ্রাপ্ত আইপিএস অফিসার যিনি কেন্দ্রীয় সরকারের বহু বড় বড় পদে আসীন ছিলেন, যখন কোন কিছু সামাজিক মাধ্যমে পােস্ট করেন তখন স্বাভাবিকভাবেই বহু মানুষ সেই পােস্ট পড়েন এবং যারা রামমােহন রায়ের অবদান সম্পর্কে অবহিত নন তাদের মধ্যে, ঘৃণ্য অভিব্যক্তি তৈরি হয়। এই ধরণের মানহানিকর, উত্তেজক মন্তব্যের জন্য একজন বাঙালি এবং একজন ভারতীয় নাগরিক হিসেবে অত্যন্ত আহত হয়েছি। ওই ব্যক্তির যথােপযুক্ত শাস্তির দাবি করছি।’

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here