মায়ের সঙ্গে নদী পেরোতে গিয়ে জলে ডুবে মৃত্যু হস্তি শাবকের

0

Last Updated on September 12, 2020 11:00 AM by Khabar365Din

৩৬৫ দিন। মায়ের সঙ্গে নদী পেরোতে গিয়ে জলে ডুবে মৃত্যু হলো এক হস্তি শাবকের। ঘটনাটি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গোয়ালতোড়ের চাউলিতে।
স্থানীয় ও বনদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বেশ কয়েকদিন ধরেই গোয়ালতোড়ের ধরমপুর, কদমডিহা প্রভৃতি এলাকার জঙ্গলগুলিতে প্রায় ২০-২৫ টি হাতির একটি পাল আস্তানা গাড়ে। এলাকায় তাণ্ডব চালানোর পাশাপাশি ফসলেরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে। সেই হাতির পালটি শুক্রবার রাতে দুটি দলে ভাগ হয়ে পড়ে। প্রথম দলটিতে প্রায় ১০ -১২ টি হাতি ধরমপুর কদমডিহার জঙ্গলের দিক থেকে গোয়ালতোড়- শাঁখাভাঙার মাঝে তমাল নদী কাঁকড়িশোলের দিকে চলে যায়। পরের দলটি প্রায় রাত ১টা নাগাদ তারাও খাবারের সন্ধানে বেরিয়ে পড়ে। এই দলেই ছিল একটি এক সপ্তাহের হস্তি শাবক। এই হাতির পালটি তমাল নদী পেরোতে গিয়েই ঘটে বিপত্তি। নদীর জলের তোড়ে শাবকটি ভেসে চলে যায়। অন্যান্য হাতি গুলি শাবকটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করলেও সফল হয়নি। পরে শনিবার সকালে স্থানীয়রা দেখেন কিছুটা দুরে নদীর মাঝে মাছ ধরার বাঁধানো ঘাটে পড়ে আছে হস্তিশাবকের দেহ। এদিকে এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই মৃত হস্তিশাবক দেখতে ভিড় জমে যায় তমাল নদীর পাড়ে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি, তার ওপর কংসাবতী ক্যানেলে জল ছাড়ার ফলে এই নদীটি জলে টইটুম্বুর হয়েছিল। তার উপর নদীটি খরস্রোতা। ফলে ওই হস্তি শাবকটি তার মায়ের সাথে নদী পেরোতে গিয়েই জলে ডুবে মারা গিয়েছে। খবর দেওয়া হয় গোয়ালতোড় থানায় এবং গোয়ালতোড়ের রেঞ্জ অফিসে। বনদপ্তরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে প্রাথমিক ভাবে দেখে মনে হচ্ছে জলে ডুবেই মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর পুরো ঘটনার সবিস্তারে বলা যাবে।

- Advertisement -
Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here