কয়েকজনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় একটি হোটেলের মালিককে গ্রেপ্তার করে পুলিস

0

৩৬৫ দিন। কয়েকজনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় বর্ধমান শহরের লক্ষ্মীপুরমাঠ কলেজ মোড় এলাকার একটি হোটেলের মালিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতের নাম গণেশ পাশোয়ান। লক্ষ্মীপুরমাঠ এলাকাতেই তার বাড়ি। বর্ধমান শহরে ৮ জনের রহস্য মৃত্যু হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে বিষ মদ খেয়ে মৃত্যু হয়েছে। গণেশের হোটেলে মদ খাওয়ার পর বেশ কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়েন। এনিয়ে শহরের বাহিরসর্বমঙ্গলাপাড়ার মৃত হালিম শেখের দাদা হবিবর শেখ বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

- Advertisement -

অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ তাঁর ভাই সহ আরও কয়েকজন গণেশের হোটেলে গিয়ে দেশি মদ খায়। পরেরদিন সন্ধ্যায় সকলেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। অসুস্থদের বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ও কয়েকটি নার্সিংহোমে ভরতি করা হয়। রাত ৯টা নাগাদ হালিম মারা যায়।

নেশা বাড়ানোর জন্য মদে বিষাক্ত কিছু মেশানো হয়েছিল বলে অভিযোগে জানিয়েছেন হবিবর। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২, ৩২৮, ২৭২ ও ১২০(বি) ধারায় মামলা রুজু করেছে থানা।

তদন্তে নেমে মঙ্গলবার সকালে বর্ধমান শহরের খোসবাগান এলাকার একটি নার্সিংহোমের সামনে থেকে অভিযুক্তকে ধরা হয়। সরকারি দেশি মদে ভেজাল মেশানোর কথা ধৃত কবুল করেছে বলে পুলিসের দাবি। এদিনই ধৃতকে বর্ধমান আদালতে পেশ করা হয়।

চোলাইয়ে মেশানো ভেজাল রাসায়নিক উদ্ধারের জন্য এবং ঘটনার বিষয়ে বিশদে জানতে ধৃতকে ৭ দিন নিজেদের হেফাজতে নিতে চেয়ে আদালতে আবেদন জানায় পুলিস। ধৃতের ৪ দিনের পুলিসি হেফাজত মঞ্জুর করেন সিজেএম।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here